শিশুদের অ্যাজমা অ্যালার্জি ঠেকাতে ভিটামিন-ডিমায়ের গর্ভকালীন অবস্থা থেকে সন্তানের জন্মের কয়েক মাস পর্যন্ত নিয়মিত ভিটামিন-ডি সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হলে, সেই বাচ্চার মধ্যে অ্যালার্জির প্রবণতা কমে।

শুধু অ্যালার্জিই নয়, অ্যাজমা ঠেকাতেও জুড়ি নেই ভিটামিন ডি’র। সম্প্রতি এক গবেষণা রিপোর্টে এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ড ইউনিভার্সিটির গবেষক ক্যামেরন গ্রান্টের দাবি, বাচ্চাদের মধ্যে ঘরে জমে থাকা ধুলোবালি থেকেও অ্যালার্জি হওয়ার প্রবণতা থাকে। ভিটামিন-ডি সেই অ্যালার্জি ঠেকায়। সেইসঙ্গে ছোট বাচ্চাদের অ্যাজমার হাত থেকেও ভিটামিন-ডি রক্ষা করে।

ক্যামেরন জানান, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের সময় গর্ভবতী মহিলাদের একটা সময় থেকে নিয়মিত ভিটামিন-ডি সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হয়। তাদের সন্তান প্রসবের পর, সেই বাচ্চাকেও ভিটামিন-ডি দেওয়া হয়েছে।

গর্ভস্থ ভ্রুণের ২৭ সপ্তাহ বয়স থেকে ভিটামিন-ডি সাপ্লিমেন্ট দেওয়া শুরু হয়। বাচ্চার ৬ মাস অর্থাৎ দেড় বছর বয়স পর্যন্ত একবারও ভিটামিন ডি বন্ধ করা হয়নি। সেই বাচ্চারই যখন ১৮ মাস বয়স হয়, তার উপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে অ্যালার্জি ও অ্যাজমা প্রতিরোধী ক্ষমতা দেখেন ক্যামেরন।

তার ভিত্তিতেই গবেষকরা দাবি করেন, বাচ্চাকে অ্যাজমা ও অ্যালার্জির হাত থেকে বাঁচাতে হলে, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেই মাকে নির্দিষ্ট মাত্রায় ভিটামিন ডি দিতে হবে। সুত্র- ডিএনএইন্ডিয়া

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য