আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের ৪টি উপজেলার দুইটিতে আ’লীগ ও দুইটিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী জয় লাভ করেছে।

রোববার (১০ মার্চ) রাতে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার জেলা নির্বাচন অফিসার মঞ্জুরুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এরা হলেন, লালমনিরহাট সদও উপজেলায় বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুজ্জামান সুজন, কালীগঞ্জ উপজেলায় আ’লীগ প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান, হাতিবান্ধা উপজেলায় বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মশিউর রহমান মামুন ও পাটগ্রাম উপজেলায় আ’লীগ প্রার্থী রুহুল আমিন বাবুল। অপর আদিতমারী উপজেলায় আইন শৃঙ্খলার অবনতি শঙ্খায় নির্বাচন কমিশন ওই উপজেলায় ভোট স্থগিত করেছেন।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের কামরুজ্জামান সুজন। সদর উপজেলার ৮৯ কেন্দ্রের ফলাফলে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের কামরুজ্জামান সুজন পেয়েছেন ২৯ হাজার ৩৬ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বিদ্ব আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থী নজরুল হক পাটোয়ারী ভোলা নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৫শত ৭১ ভোট।

কালীগঞ্জউপজেলায় বিশাল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান আহমেদ। এই উপজেলার মোট ৭৪ কেন্দ্রের ফলাফলে মাহবুবুজ্জামান আহমেদ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮৮ হাজার ৮৭৬ ভোট। অপরদিকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী নাহিদ পেয়েছেন ৪ হাজার ৯১৮ ভোট।

হাতীবান্ধা উপজেলায় আ’লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মশিউর রহমান মামুন আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী লিয়াকত হোসেন বাচ্চুকে বিশাল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছে। আ’লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মশিউর রহমান মামুন ঘোড়া প্রতীকে মোট ভোট পেয়েছেন ২৮ হাজার ৯শক ১১ ভোট। তার নিকটতম আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৬শত ৫৫ ভোট।

পাটগ্রাম উপজেলায় আ’লীগ প্রার্থী রুহুল আমিন বাবুল আ’লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীকে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আ’লীগ প্রার্থী রুহুল আমিন বাবুল পেয়েছেন ৪৮ হাজার ৯শত ৯৫ ভোট। তার নিকটতম আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ওযাজেদুল ইসলাম শাহীন আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৪শত ৭১ ভোট। ভোট।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য