দিনাজপুরে শিশুদের চিত্রাংকন ও ঐতিহাসিক ভাষন পরিবেশ প্রতিযোগিতাদিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলম বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের ভাষন আজ সারা বিশ্বে অতীব তাৎপর্যপূর্ণ একটি ঐতিহাসিক প্রামাণিক দলিল হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষনে বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ যেভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তা আজ পর্যন্ত বিশ্বের আর কোন নেতা পারেন নি।

তিনি ৭ মার্চের ভাষনের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। যা প্রজ্জ্বলিত করেছিল মুক্তিযুদ্ধের দাবানলকে, যার সামনে টিকতে পারেনি শক্তিশালী পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। বঙ্গবন্ধুর ঐ ভাষন বাংলাদেশের ৭ কোটি মানুষকে প্রস্তুত করেছে স্বাধীনতার সংগ্রামে। বঙ্গবন্ধুর এই ভাষন ছিল সেসময়ের দিশেহারা জাতীয়র জন্য আলোকবর্তিকা স্বরূপ।

৭ মার্চ বৃহস্পতিবার দিনাজপুর শিশু একাডেমী মিলনায়তনে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমী দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ দিবসের উদযাপন উপলক্ষে শিশুদের চিত্রাংকন ও ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষন পরিবেশ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলম এসব কথা বলেন।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মোহছেন উদ্দিন এর সভাপতিত্বে এবং জেলা শিশু একাডেমীর শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল আলম এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য