জম্মুতে বাস স্টেশনে বিস্ফোরণ, আহত ২৬ভারতের জম্মু শহরের প্রধান বাস স্টেশনে শক্তিশালী একটি গ্রেনেড বিস্ফোরণে ২৬ জন আহত হয়েছেন।

এই বাস স্টেশনটি জম্মু শহরের একেবারে কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

বৃহস্পতিবারের এ ঘটনায় আহতদের সবাই বাসের চালক ও কন্ডাক্টর বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

আহতদের মধ্যে পাঁচ জনের অবস্থা সঙ্কটজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

স্টেশনে দাঁড়ানো একটি বাসের নিচে গ্রেনেডটি পেতে রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। বাসটির ভিতরে লোকজন ছিল কি না তাৎক্ষণিকভাবে তা পরিষ্কার হয়নি।

এক পুলিশ কর্মকর্তা উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেছেন, “যেসব সূত্র পাওয়া গেছে তার সবগুলো নিয়েই কাজ করছে পুলিশ। আমরা প্রমাণ সংগ্রহ করছি তারপর জড়িতদের খুঁজে বের করবো।”

বিস্ফোরণের পর থেকে নিরাপত্তা বাহিনী ঘটনাস্থল ঘেরাও করে রেখেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনী ঘটনাস্থল ঘেরাও করে রেখেছে এবং স্থানীয় প্রচুর লোক ঘটনাস্থলের কাছকাছি জড়ো হয়েছেন।

আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এক প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এএনআইকে বলেছেন, “আমি মনে করেছিলাম টায়ার বার্স্ট হয়েছে। বড় ধরনের বিস্ফোরণ ছিল। স্থানীয়রা একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে আহতদের হাসপাতালে নিয়ে গেছে।”

জম্মু ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের শীতকালীন রাজধানী। সম্প্রতি রাজ্যের পুলওয়ামা জেলায় এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ভারতীয় আধাসামরিক বাহিনীর ৪০ জনেরও বেশি জওয়ান নিহত হওয়ার পর থেকে রাজ্যজুড়ে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ঘটনার জেরে পাকিস্তানের বালাকোটে বোমা হামলার দায় স্বীকার করা জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদের কথিত জঙ্গি আস্তানায় হামলা চালিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। এরপর থেকে প্রতিবেশী দেশ দুটির মধ্যেও তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এর মধ্যেই জম্মুতে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলো। এই শহরটির অবস্থান পাকিস্তান সীমান্তের খুব কাছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য