আসুন একসঙ্গে বসে সব কিছুর সমাধান করিপাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ভারতের শুভ বুদ্ধির উদয় হওয়া উচিত। তিনি যুদ্ধের পথ পরিহার করে আলোচনা ও শান্তির পথ বেছে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। আজ (বুধবার) দুপুরে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ইমরান খান এ আহ্বান জানান।

ভারতের জঙ্গি বিমান ভূপাতিত করার পাশাপাশি দুই পাইলটকে আটকের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, আজ আমরা যে পদক্ষেপ নিয়েছি তার একমাত্র লক্ষ্য হচ্ছে ভারতকে এই বার্তা দেওয়া যে, আপনারা যদি আমাদের দেশে ঢুকতে পারেন তাহলে আমরাও একই কাজ করতে পারব। আজকের পদক্ষেপের একমাত্র লক্ষ্য ছিল এটাই। নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করার পর ভারতের দু’টি জঙ্গিবিমান ভূপাতিত করা হয়েছে।

জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তিনি আরও বলেন, “পুলওয়ামাতে ওই ঘটনার পর আমরা (পাকিস্তান) ভারতকে শান্তির প্রস্তাব দিয়েছিলাম। আমি ওই সব পরিবারের (যারা পুলওয়ামার পরিবারের সদস্যদের হারিয়েছে) যন্ত্রণা বুঝতে পারি। হাসপাতাল পরিদর্শনের অভিজ্ঞতা আমার আছে। আমি সহিংসতার শিকার মানুষের বেদনা দেখেছি।”

ইমরান খান আরও বলেন, “আমরা ভারতকে প্রস্তাব দিয়েছিলাম যে, আমরা ওই ঘটনার (পুলওয়ামা) তদন্ত করব। আমরা সহযোগিতা করতে চেয়েছিলাম এবং তা করার জন্য প্রস্তুতও ছিলাম। আমি ভীত ছিলাম যে, এরপরও ভারত অ্যাকশনে যাবে। আমি ভারতকে আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়েছিলাম।”

তিনি বলেন, “আমি আবারও ভারতকে বলছি। আসুন আমরা একসঙ্গে বসি এবং আলোচনার মাধ্যমে সব কিছুর সমাধান করি। সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে সব ধরণের আলোচনায় বসতে আমরা প্রস্তুত আছি।”
-খবর পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য