ভিয়েতনামে কিম, ট্রাম্পও যাচ্ছেনমার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে ভিয়েতনামে উপস্থিত হয়েছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন।

ট্রেনে উত্তর কোরিয়া থেকে চীন হয়ে মঙ্গলবার ভিয়েতনাম পৌঁছান কিম, একই দিন সন্ধ্যার মধ্যে ট্রাম্পের ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে পৌঁছানোর কথা রয়েছে; খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

রাজধানী পিয়ংইয়ং থেকে যে ট্রেনে করে কিম রওনা হয়েছিলেন সেটি চীনের সীমান্ত পেরিয়ে ভিয়েতনামের ডং ড্যাং শহরে পৌঁছলে দেশটির কর্মকর্তারা তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। উত্তর কোরিয়া ও ভিয়েতনামের পতাকায় সজ্জিত ডং ড্যাং রেলস্টেশনে কিমকে গার্ড অব অনারসহ লাল গালিচা সম্বর্ধনা দেওয়া হয়।

কিমের বোন ও তার গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী কিম ইয়ো জোং-ও ভাইয়ের সঙ্গে ভিয়েতনামে এসেছেন।

সেখান থেকে গাড়িতে করে হ্যানয়ের পথে রওনা হন কিম। দুই ঘন্টার এই যাত্রাপথে প্রায় এক ডজন দেহরক্ষী তার গাড়ির পাশে পাশে দৌঁড়ে যায় বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

এ সময় ডং ড্যাং থেকে হ্যানয়ের পথে অন্যান্য গাড়ি চলাচল বন্ধ ছিল। হ্যানয়ের মেলিহা হোটেলে যাওয়ার পুরোটা পথ সাঁজোয়া যান নিয়ে পাহারা দেয় ভিয়েতনামি নিরাপত্তা বাহিনী। ভিয়েতনাম সফরে এই মেলিহা হোটেলেই অবস্থান করবেন উত্তর কোরীয় নেতা।

অপরদিকে ট্রাম্পকে বহনকারী বিমান এয়ার ফোর্স ওয়ানে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্স সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধ্যায় দুই নেতার সম্মানে আয়োজিত এক নৈশভোজে অংশ নিবেন কিম ও ট্রাম্প, এরপর সংক্ষিপ্ত মুখোমুখি বৈঠকে মিলিত হবেন তারা।

সফরে কিম ও ট্রাম্প উভয়েরই পৃথকভাবে ভিয়েতনামি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করার কথা আছে।

সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক প্রথম বৈঠকের আট মাস পর ফের মিলিত হচ্ছেন কিম ও ট্রাম্প। সিঙ্গাপুরের ওই বৈঠকটি ছিল উত্তর কোরীয় কোনো নেতার সঙ্গে ক্ষমতাসীন কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রথম বৈঠক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য