ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় একই রোগে পরিবারে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একের পর এক এ মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়। এছাড়াও বিষয়টি এলাকার সাধারণ মানুষকে চিন্তিত করে তুলেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৯ ফেব্রুয়ারি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভান্ডারদহ নয়াবাড়ী গ্রামের তাহের আলী (৫০) মারা যান। এরপর গত ২০ ফেব্রুয়ারি তাহের আলীর মেয়ের জামাই হাবিবুর রহমান ( ৩২), ২১ ফেব্রুয়ারি তাহেরের স্ত্রী হোসনে আরা (৪৫), ২৪ ফেব্রুয়ারি তাহেরের বড় ছেলে ইউসুফ আলী (৩০) মারা যান।

রোববার তাহেরের ছোট ছেলে মেহেদী হাসান গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯টায় তারও মৃত্যু হয়। একে একে ওই পরিবারের পাঁচ জনের মৃত্যুর ঘটনায় এলাকার লোকজন আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসাব্বেরুল হক জানান, তাহেরের ছোট ছেলে মেহেদীকে চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রোববার রাতে তার মৃত্যু হয়।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ফিরোজ জামান জুয়েল মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ব্রেন ভাইরাসের কারণে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটতে পারে। হাঁচি বা কাশির মাধ্যমে এ রোগ ছড়িয়ে যায়।

৩ নম্বর ধনতলা ইউপি চেয়ারম্যান সমর কুমার চ্যাটাজ্জী জানান, ব্রেন ভাইরাস রোগ হলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মানুষ মারা যাবে। মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এ মৃত্যুর ঘটনায় মানুষের মনে নানা রকম প্রশ্ন দানা বাঁধছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য