নাইজেরিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ৩৯নাইজেরিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় ৩৯ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিত্বকারী গোষ্ঠীগুলো।

শনিবার নাইজেরিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনকে ১৯৯৯ সালে সামরিক শাসন অবসানের পর থেকে সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

নির্বাচনের ফলাফলের জন্য পুরো দেশ যখন অপেক্ষা করছে সেই সময় রোববার নিহতের এ পরিসংখ্যান তুলে ধরে ৭০টিরও বেশি নাগরিক গোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্বকারী মঞ্চ ‘সিচুয়েশন রুম’, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

লাগোসভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান এসবিএম ইন্টেলিজেন্সের তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে তারা নিহতের এ সংখ্যা জানিয়েছে।

সাবেক সামরিক শাসক ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ৭৬ বছর বয়সী মুহাম্মাদু বুহারি দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ৭২ বছর বয়সী সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ব্যবসায়ী আতিকু আবুবকর।

পুলিশ এখনও তথ্য সংগ্রহ করছে বিধায় হতাহতের সংখ্যা জানাতে পারছে না বলে জানিয়েছেন পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক আবদুলমাজিদ আলী।

তবে দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য রিভারর্স ও আকওয়া ইবোমে সবচেয়ে বেশি সহিংসতা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সারা দেশে নির্বাচন সম্পর্কিত বিভিন্ন অপরাধের ঘটনায় ১২৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পাশাপাশি ৩৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিস্ফোরকের একটি ভাণ্ডার জব্দের কথাও জানিয়েছে তারা।

আফ্রিকার সবচেয়ে জনবহুল এই দেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এবার নিহতের যে সংখ্যার কথা বলা হয়েছে তা আগেরবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিহতের সংখ্যা থেকে অনেক কম। তবে দেশটিতে সাধারণত নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরই সবচেয়ে বেশি অস্থিরতার ঘ্টনা ঘটে থাকে।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের তথ্যানুযায়ী, নাইজেরিয়ায় ২০১৫ সালের শেষ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণের সময় ও পরে শতাধিক লোক নিহত হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য