ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর একে অপরের ছুরকাঘাতে সাহানাজ পারভিন (১৮) নামে এক গৃহবধু নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয়ে এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন স্বামী সাজু মিয়া (২২)।

গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় পৌর শহরের কৃষ্ণপুর গ্রামে এই ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধু সাহানাজ পারভিন (১৮) কৃষ্ণপুর গ্রামের সাজু মিয়ার স্ত্রী ও পার্বতীপুর উপজেলার বৈগামের সাহিদুল সরদারের মেয়ে। গুরুতর আহত স্বামী সাজু মিয়া (২২) কৃষ্ণপুর গ্রামের আজিজুল ইসলামের ছেলে ।

এই ঘটনায় নিহত গৃহবধু সাহানাজ পাভিনের পিতা সাহিদুল সরদার বাদি হয়ে ওই দিন রাতে ফুলবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দয়ের করেছে।

গ্রামবাসী ও ফুলবাড়ী থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী সাজু মিয়া ও স্ত্রী সাহানাজ পারভিনের মধ্যে ছুরিকাঘাতে ঘটনা ঘটে।

একে-অপরের ছুরকাঘাতে স্বামী সাজু মিয়া ও স্ত্রী সাহানাজ পারভিন উভায়ে গুরুতর আহত হলে, পরিবারের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রেজাউল করিম সাহানাজ পারভিনকে মৃতবলে ঘোষনা করেন।

গৃহবধু সাহানাজ পারভিনের মৃত্যুে খবর শুনে,স্বামী সাজু মিয়ার পরিবারের সদস্যরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ সাহানাজ পারভিনের মৃতদেহ উদ্ধার করে, ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। এবং গুরুতর আহত সাজু মিয়াকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য