লালমনিরহাটে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ,ধর্ষক গ্রেফতারআজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

App DinajpurNews Gif

এ ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি আমির হোসেন(২২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্কুল ছাত্রী লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলা চলবলা ইউনিয়নের হারিশ্বহর থেকে ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়।

ধর্ষক আমির হোসেন লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা চলবলা ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামের মৃত সুরুজ আলীর ছেলে।

জানা গেছে, শনিবার বাড়িতে একা রেখে বাবা-মা দু’জনেই দিনমজুরের কাজ করতে পাশের একটি গ্রামে যায়। ওই সময় স্কুল ছাত্রীকে বড়িতে একা দেখতে পেয়ে লম্পট ধর্ষক কয়েকবার মারধর করে মুখ চেপে ধরে বাড়ির একটি ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এসময় স্কুল ছাত্রীর আত্মচিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে ধর্ষক আমির হোসেন পালিয়ে যায়। পরে মেয়েটিকে উদ্ধার করে অসুস্থ অবস্থায় লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় ওইদিন সাড়ে ১১টার দিকে মেয়ের বাবা নরেন্দ্র নাথ বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় ধর্ষক আমির হোসেনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে।

রোববার সকালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামি আমির হোসেনকে ঢাকায় পালানোর সময় তার বোনের বাড়ি থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

মেয়েটির বাবা নরেন্দ্র নাথ বিচার চেয়ে বলেন, ‘আমরা গরীব দিনমুজর করে দুজনে সংসার চালাই। ধর্ষকের উপযুক্ত বিচার চাওয়া ছাড়া আমার আর কিছু নেই।’

কালীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মকবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষন হওয়ার পরে মেয়েটির বাবা ধর্ষক আমির হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করলে তার বোনের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিকেলে তাকে লালমনিরহাট জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য