বিজিবি’র গুলিতে নিহতেদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধনে কঠোর কর্মসূচীর হুঁশিয়ারিমাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁওঃ ঠাকুরগাঁওয়ের হারিপুরে বিজিবি কর্তৃক নৃসংসভাবে গুলি করে পথচারী, শিশু ও ছাত্রসহ নিরীহ মানুষকে হত্যার প্রতিবাদে অবিলম্বে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ক্ষতিগ্রস্থদের উপর্যুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবীতে মানববন্ধন হয়েছে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে।

শনিবার দুপুরে বিক্ষুদ্ধ নাগরিক সমাজের ব্যানারে পীরগঞ্জ পশ্চিম চৌরাস্তা বটতলা এলাকায় এ মানববন্ধন হয়।

ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, পীরগঞ্জ উপজেলা সিপিবি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আবু সায়েম, বাংলাদেশ ন্যাপের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হোসেন, উপজেলা যুব মৈত্রীর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুজ্জামান রফিক, পীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন দুলাল সরকার, উপজেলা উদীচির সাধারণ সম্পাদক নিরঞ্জন রায়, অঙ্গীকার নাট্য নিকেতনের সভাপতি গৌতম দাস বাবলু, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি শামীম, রংধুন শিশু সংগঠনের সাগর প্রমূখ।

বক্তরা প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, সীমান্তে বিজিবিকে সরকার আমাদের জান মাল রক্ষার দায়িত্ব দিয়েছেন। কিন্তু তারা ক্ষমতার অপব্যবহার করে নৃসংশভাবে নিরীহ মানুষকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করেছে।

বক্তারা আরো বলেন, বিজিবি গুলি করে মানুষ হত্যা করে আবার সেই নিহত মানুষদের নামে মামলা দিয়েছে।

যদি কোন ভাবে এই ঘটনাকে অন্যভাবে প্রভাবিত করা হয়। ক্ষতিগ্রস্থরা যদি ন্যায় বিচার থেকে বি ত হয় তাহের কঠোরতম কর্মসূচীর ঘোষনা’র হুঁশিয়ারি দেন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দুপুরে ভারতীয় চোরাই গরু সন্দেহে হরিপুরের বহরমপুর গ্রামে গরু আটক করাকে কেন্দ্র করে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নবাব (৩০), সাদেক (৪০) ও জয়নুল হক মারা যায়।

এ ঘটনায় আহত হয় আরো ১৫ জন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য