পঞ্চগড়ে কাদিয়ানিদের ইজতেমা বন্ধে বিক্ষোভ, পুলিশের সাথে সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহতপঞ্চগড়ে কাদিয়ানিদের তিন দিনের কথিত ইজতেমা বন্ধের দাবীতে মুসল্লিদের বিক্ষোভ মিছিলে প্রশাসনের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে করে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত হয়।

জানা গেছে , মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারী) রাত ৮টার পর জেলার মুসল্লিরা খন্ড খন্ড বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পঞ্চগড় শেরে বাংলা পার্কে জমায়েত হয়ে কাদিয়ানীদের জলসা বন্ধের দাবী জানিয়ে বিক্ষোভ করে মুসল্লিরা।

এসময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী ও প্রশাসন মুসল্লিদের শান্তনা দেন। এক পর্যায়ে মুসল্লিরা কাদিয়ানীদের সম্মেলন বন্ধের উদ্দেশ্যে রওনা হলে প্রশাসন থামানোর চেষ্টা চালালে রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ফাকা গলি, টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

আহত মোশারফ হোসেন বলেন, আমি আহমদিয়া মসজিদের ছাদে ছিলাম। ওরা দলে দলে আমাদের ওপর হামলা করে ইট পাটকেল ছুড়তে থাকে। বাড়িঘরে ভাঙচুর করে ও অগ্নিসংযোগ করে। তাদের ছোরা একটি ইটের টুকরো আমার মাথায় লাগে।

পুলিশ সুপার গিয়াস উদ্দিন আহমদ জানান, মুসল্লিদের বিচ্ছিন্ন একটি গ্রুপ এই হামলা করেছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি কারা কারা এর সাথে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন জানান, মুসল্লিদের দাবি ছিল কাদিয়ানীদের জলসা বন্ধ করলে তারা তাদের দাবি-দাওয়া তুলে নেবে। আমরা তাদের জলসা স্থগিত করার ঘোষণা দেই তারপরও তারা এই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য