সিরিয়ার সরকার ও উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে বন্দি বিনিময়সিরিয়ার সেনাবাহিনী এবং দেশটিতে তৎপর উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠিগুলো নিজেদের মধ্যে বন্দি বিনিময় করেছে। ইরান, রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যস্থতায় চলমান শান্তি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মঙ্গলবার এই বন্দি বিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দু’পক্ষ ‘বেশ কিছু বন্দি’কে মুক্তি দিয়েছে। লন্ডন-ভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, দু’পক্ষের প্রত্যেকে ২০ জন করে বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে। সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় আলেপ্পো প্রদেশের আল-বাব শহরে এই বন্দি বিনিময় হয়।

সিরিয়ায় ২০১১ সালের মার্চ মাস থেকে বিদেশি মদদে চাপিয়ে দেয়া সহিংসতায় অন্তত তিন লাখ ৬০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। শরণার্থীতে পরিণত হয়েছে লাখ লাখ মানুষ।

সিরিয়ার সহিংসতা বন্ধের নানারকম উদ্যেগ ব্যর্থ হওয়ার পর ২০১৭ সাল থেকে ইরান, রাশিয়া ও তুরস্কের উদ্যোগে যে শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হয় তার জের ধরে সিরিয়ার সহিংসতা উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমে এসেছে। ওই তিন দেশ সিরিয়ার সংঘর্ষরত পক্ষগুলোকে নিয়ে এ পর্যন্ত কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানাসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে বেশ কয়েকটি বৈঠকের আয়োজন করেছে।

শিগগিরই মধ্যস্থতাকারী এই তিন দেশের প্রেসিডেন্টরা রাশিয়ার অবকাশযাপন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত সোচি শহরে সিরিয়া বিষয়ক বৈঠকে মিলিত হবেন বলে সম্প্রতি রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ জানিয়েছেন।
-পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য