অপহরণ করে ধর্ষনের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় রংপুরের গঙ্গাচড়ার বিশ্বজিৎ চন্দ্র রিপন(৩৪) নামের এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দিয়েছে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে ওই আদালতের বিচারক মোঃ রোকনুজ্জামান এই আদেশ দেন। তবে রিপন পলাতক আছে।

রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর জাহাঙ্গীর হোসেন তুহিন জানান, ২০০৮ সালের ১১ অক্টোবর রংপুরের গঙ্গাচড়ার নবনীদাস কামারপাড়া এলাকার পুর্ন চন্দ্র রায়ের কন্যা ভারতী রাণীকে একই এলাকার রবীন্দ্রনাথ রায়ের পুত্র বিশ্বজিত চন্দ্র রিপন রাতের বেলা টিউবওয়েলের পার থেকে অপহরণ করে নিজ বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে।

এ ঘটনায় গঙ্গাচড়া থানায় অপহরণ ও ধর্ষনের মামলা করে ভারতী রানি। ফরেনসিক রিপোর্ট এবং বিষয়টি তথ্যানুসন্ধান করে আদালতে চার্জশিট দেন এসআই আবদুল লতিফ।

দীর্ঘ ১০ বছর পর ৯ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য শেষে মঙ্গলবার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক মোঃ রোকনুজ্জামান বিশ্বজিৎ চন্দ্র রিপনকে যাবজ্জীবন ও ১৪ বছরের কারাদ- এবং ১ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন। আসামি ঘটনার পর থেকেই পলাতক আছে।

পিপি আরও জানান, কারাদন্ডাদেশ প্রাপ্ত রিপন ভারতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। অবিলম্বে তাকে গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য