আব্দুল মান্নান,হাবিপ্রবি।। গবেষণাকার্যে উৎসাহ প্রদানের উদ্দেশ্যে প্রতিবছর গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে খাদ্য ও কৃষিবিজ্ঞান, ভৌতবিজ্ঞান এবং জীববিজ্ঞান এই তিনটি বিভাগে এমএসসি,এমফিল ও পিএইচডি গবেষকদের “জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ”প্রদান করা হয়ে থাকে।প্রতিবারের ন্যায় এবারও ১৬৫৮ জন শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হয়েছে এই ফেলোশিপ ।

১৬৫৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্য থেকে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি)থেকে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপে নির্বাচিত হয়েছেন ১৭৬ জন শিক্ষার্থী ।এর মধ্যে শুধু কৃষি বিজ্ঞানের ১১ বিভাগের কৃষিবনায়ন ও পরিবেশ বিভাগ ৬,কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ ৯ ,এগ্রোনমি ১৪ ,কীটতত্ত্ব ১৩ বায়োকেনিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি ৬, উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব ৯ ,ফসল শরীরতত্ত্ব ১০, কৃষি রসায়ন ৭ ,মৃত্তিকা ৫ ,উদ্যানতত্ত্ব বিভাগে ১৫,কৌলিক তত্ত্ব বিভাগে ১৩ জন সহ কৃষিবিজ্ঞানে মোট ১০৭ জন শিক্ষার্থী জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে বিভিন্ন বিভাগের কয়েকজন শিক্ষকের সাথে কথা বললে তারা জানান,এবার যারা ফেলোশিপের জন্য আবেদন করেছে তাদের কম-বেশি সবাই নির্বাচিত হয়েছে ।যারা বাদ পড়েছে তাদের অনেকের মধ্যে ফেলোশিপের জন্য আবেদন করলেও পরবর্তীতে ভাইবা দিতে যায় নি।

উল্লেখ্যে যে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো. রবিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে ফেলোশিপ বাবদ ৯ কোটি ৪৬ লক্ষ ৫ হাজার ৬’শত টাকা প্রদানের আদেশ দেয়া হয়েছে।জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ প্রাপ্ত ১৬৫৮ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমএসসি শিক্ষার্থীদের জন প্রতি ৫৪ হাজার টাকা, এমফিল গবেষকদের ৬৮ হাজার টাকা এবং পিএইচডি গবেষকদের তিন লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা পাবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য