যুক্তরাষ্ট্রে ভুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাঁদে ভারতীয় শিক্ষার্থীরাশিক্ষার্থী গ্রেপ্তারের ঘটনায় আমেরিকার ওপর বেজায় চটেছে ভারত। ইতিমধ্যে ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে প্রতিবাদ। খবর বিবিসির।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একটি ভুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে নামে ফাঁদ পেতে ১২৯ জন ভারতীয় শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করে আমেরিকা।

এসব ভারতীয় শিক্ষার্থী দেশটিতে অবৈধভাবে ছিল বলে আমেরিকার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। তাই তাদের গ্রেপ্তারে এমন ফাঁদ পাতে আমেরিকা।

এমন ঘটনায় ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শনিবার দিল্লিতে মার্কিন দূতাবাসে প্রতিবাদ জানায়। শিগিগিরই এর একটা সমাধানের জন্য ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়।

তবে এর আগে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া’র খবরে বলা হয়, অভিবাসন নিয়ম না মানার ‘অপরাধে’ ৬০০ ভারতীয় শিক্ষার্থীকে আটক করেছে আমেরিকা।

আমেরিকান তেলেগু এসোসিয়েশন কয়েকদিন আগে এই তথ্য জানায়। সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়, মার্কিন ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট এজেন্সি সম্প্রতি একটি তল্লাশি অভিযান চালায়। এরপরই ৬০০ শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করা হয়। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া’র।

আমেরিকান তেলেগু এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, আমেরিকার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দেশটির ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি, ইউএস ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস অসংখ্য তেলেগু পড়ুয়াদের গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সঠিক অনুমোদন ছাড়াই সে দেশে বসবাস করছিলেন।

এছাড়া গত বুধবার, ডেট্রয়েটে ফেডেরাল মামলার শুনানিতে ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি জানায়, বেআইনিভাবে আমেরিকায় বসবাসকারী বিদেশি পড়ুয়াদের হাতে নাতে ধরতে তারা মিশিগানের ফার্মিংটন হিলস-এ একটি ভুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম করে জাল পাতে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য