যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানায় মা-বাবাসহ পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করেছে এক বন্দুকধারী। ব্যাটন রগের দক্ষিণে অ্যাসসেনশন ও লিভিংস্টন প্যারিশে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটনের পর একটি পিকআপ ট্রাকে করে পালিয়ে যায় সে। ডাকোটা থেরিওট নামের ২১ বছর বয়সী ওই বন্দুকধারীকে খুঁজে বেড়াচ্ছে পুলিশ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব কথা জানা গেছে।

পুলিশকে উদ্ধৃত করে বিবিসি জানায়, শনিবার সকালে ব্যাটন রগের ২৫ মাইল দক্ষিণে গনজালেস শহরে একটি ট্রেইলার পার্কে পুলিশকে ডাকা হয়। জানানো হয়, সেখানে পারিবারিক বিরোধের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর এলিজাবেথ ও কিথ থেরিওট নামে দুইজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। তারা তখনও জীবিত ছিলেন।

দুইজনেরই বয়স ৫১ বছর। তারা পুলিশকে জানান, নিজেদের ছেলে ডাকোটাই তাদেরকে গুলি করেছে। তারা আরও জানান, সম্প্রতি ছেলেকে ঘর থেকে বের করে দিয়েছিলেন। ওই দম্পতিকে হাসপাতালে নেওয়ার পর সেখানে মারা যান তারা।

অ্যাসসেনশন প্যারিশ শেরিফ ববি ওয়েবরে জানিয়েছেন, হামলাকারীর সঙ্গে অস্ত্র আছে এবং সে বিপজ্জনক হতে পারে।

বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মা-বাবাকে হত্যার পর পার্শ্ববর্তী লিভিংস্টন প্যারিশে আরও তিন ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করে ডাকোটা নামের ওই বন্দুকধারী। তারা হলেন-বিলি আর্নেস্ট (৪৩), সামার আর্নেস্ট (২০) ও ট্যানের আর্নেস্ট (১৭)। এদের কেউ হামলাকারীর আত্মীয় নন, তবে তারা তাকে চিনতেন।

অসমর্থিত সূত্রে বিবিসি জানিয়েছে, সামার আর্নেস্টের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ডাকোটার। বিলি আর্নেস্টের বোন ক্রিস্টাল ডেইয়ং মার্কিন বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, ‘গত সপ্তাহে একটি জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তার সঙ্গে আমার পরিবারের সদস্যদের দেখা হয়েছিল। তার আচরণ ভালো ছিল না।’

ক্রিস্টাল জানান, সামার ও ট্যানের বিলিরই সন্তান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য