বিরল বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভবনের ভিত্তির ফলক উন্মোচনদিনাজপুর সংবাদাতাঃ প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে বাল্য বিবাহের কুফল জানতে হবে এমন মন্তব্য করে জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম বলেছেন, বিশেষ করে মেয়েদের নিজেদেরই বাল্য বিবাহ থেকে সচেনত হতে হবে। কারণ দারিদ্রতার কারণে পরিবার থেকে এমন সিদ্ধান্ত আসতেই পারে। সেক্ষেত্রে মেয়েদেরই এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে হবে।

২৬ জানুয়ারী ২০১৯ শনিবার দুপুরে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বিরল উপজেলার আজিমপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ তলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের ফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের শুধু ভাল লেখাপড়া করে জিপিএ-৫ পেলেই চলবে না। বরং নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে সমাজ ও দেশ গড়ার কাজে নিজেকে নিয়োজিত করতে হবে। তাহলেই বঙ্গবন্ধুর দেখা স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা সহজ হবে।

আজিমপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিশ্বনাথ রায় এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদুল করীম, বিরল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ.বি.এম রওশন কবীর, বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল লতিফ, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুভাষ চন্দ্র রায়।

এর আগে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বিদ্যালয়ের ৪ তলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের ফলক উন্মোচন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম।
এছাড়াও বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী, ও উপজেলা আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সরকারের নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর প্রধান অতিথি হিসেবে এই একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের ফলক উন্মোচন করার কথা ছিল। কিন্তু তিনি অসুস্থ থাকায় তাঁর পক্ষে জেলা প্রশাসক উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য