দিনাজপুরে সুপ্র’র মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিতদিনাজপুর সংবাদাতাঃ সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান বাংলাদেশ (সুপ্র) দিনাজপুর জেলা কমিটির আয়োজনে করের বোঝা ও ক্রমবর্ধমান বৈষম্য বিষয়ে দিনাজপুর-পার্বতীপুর সড়কের কিষান বাজার সিডিসি’র অফিস কার্যালয় সম্মুখ সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।

২৬ জানুয়ারী শনিবার বিকেলে মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন সুপ্র’র জাতীয় পরিষদের সদস্য ও জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এবং কামটু ওয়ার্কের নির্বাহী পরিচালক মোঃ মতিউর রহমান, সুপ্র জেলা কমিটির নির্বাহী সদস্য ও সিডিসি’র নির্বাহী পরিচালক যাদব চন্দ্র রায়, কাম টু ওয়ার্কের অর্থ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ মোকাররম হোসেন মানিক, সুপ্র’র নির্বাহী সদস্য জিল্লুর রহমান, ইয়ুথ ফর হিউম্যান রাইটস ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ দিনাজপুর জেলা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা কবি ও প্রাবন্ধিক মাসুদ মুস্তাফিজ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ একরুমল হক চঞ্চলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

দাভোসে চলমান ধনী দেশ সমূহের সম্মেলন উপলক্ষে সুপ্র’র ৭টি বিশেষ দাবী সমূহ হচ্ছে পরোক্ষ কর বিশেষ করে ভ্যাট এর উপর নির্ভরতা কমিয়ে প্রত্যক্ষ আয়কর বৃদ্ধির দিকে মনোযোগ দিতে হবে।

প্রত্যক্ষ কর আহরণের মূল নীতিগত ভিত্তি হবে- সামর্থর নীতি। ’অ-প্রগতিশীল’ কর ব্যবস্থার বিপরীতে “প্রত্যক্ষ কর নির্ভর প্রগতিশীল” কর ব্যবস্থার প্রবর্তন করতে হবে। সমতা ভত্তিক কর ব্যবস্থা চালু করা। কর্পোরেট করের হার বাড়ানো, অবৈধ অর্থ পাচার রোধ করা যাতে “ট্যাক্স-হেভেন” দেশগুলো মানুষ অর্থ জমা রাখতে না পারে সে ব্যাপারে একটি বৈশ্বিক চুক্তি সম্পন্ন করা।

বৈষম্য কমানোর তাগিদে পুনঃবন্টন ও সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে একটি প্রগতি শীল কর পদ্ধতি প্রণয়ন করা। গুনগত জনসেবা এবং করের মধ্যে একটি সম্পর্ক আছে কারণ মানুষ তার প্রদেয় করের সাথে সরবরাহকৃত সেবার অনুপাতটা বুঝতে চায়।

কর দাতা ও কর গ্রহীতার মধ্যে সুসম্পর্ক থাকা উচিত এবং মানসিকতার পরিবর্তন করা প্রয়োজন। করের টাকা সুষ্ঠু ব্যবহারের জন্য একটি জন ও দরিদ্র বান্ধন বাজেট প্রণয়ন অতিব গুরুত্বপূর্ণ যেখানে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষি ও সামাজিক নিরাপত্তা খাতে যথাযথ বরাদ্দ নিশ্চি থাকবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য