কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে শ্যালো ইঞ্জিন চালিত একটি ইট বোঝাই ট্রলির চাপায় অটোবাইকের যাত্রী ১ সন্তানের জননী এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় পাঁকা রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে মারাত্বক আহত হয়েছে ওই গৃহবধুর ৮ মাসের কন্যা শিশু সুমাইয়া। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টায় উপজেলার বালারহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন পাঁকা রাস্তার মোড়ে।

নিহত গৃহবধূর নাম জাহানারা বেগম (৩২)। তিনি পার্শবর্তী লালমনিরহাট জেলার মোগলহাট ইউনিয়নের কাফেয়া গ্রামের শাবের আলীর স্ত্রী। শাবের আলী বালারহাট র্দীঘদিন ধরে বালারহাট বাজারের আদর্শ মোড়ে কুদ্দুস আলীর ওয়ার্কসপে ঝাঁলাইয়ের কাজ করেন আর স্ত্রী জাহানারা বেগম পাশে একটি দোকানে প্লাস্টিক সামগ্রী বিক্রি করেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বালারহাট থেকে ওই গৃহবধূ স্বামীর বাড়ী মোগলহাট যাওয়ার উদ্দেশ্যে কোলের শিশুকে নিয়ে অটোবাইক যোগে রওয়ানা করেন।

এ সময় অটোবাইকটি বালারহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মোড়ে পৌছিলে চালক হার্ড ব্রেক করার ফলে আকস্মিক ভাবে শিশুসহ মা রাস্তার উপর ছিটকে পড়েন । এ সময় বিপরীত দিকে আসা একটি ইট বোঝাই ট্রলি মা-শিশুকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই গুরুতর আহত হন। পরে এলাকাবাসী তাদেরকে দ্রুত উদ্ধার করে ফুলবাড়ী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জাহানারা বেগমকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ আর্জিনা জানান, হাসপাতালে আসার আগেই ওই গৃহবধু মৃত্যুবরণ করেন,আর আহত শিশুটিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে ফুলবাড়ী থানার ওসি খন্দকার ফুয়াদ রুহানী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য