গাইবান্ধা-৩ আসনে নির্বাচন ২৭ জানুয়ারি প্রস্তুতি সম্পন্নআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা-৩ (পলাশবাড়ী-সাদুল্লাপুর) আসনে নির্বাচন ২৭ জানুয়ারি। উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রশাসনিক সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন। ইতোমধ্যেই ভোটগ্রহণের ব্যালটসহ অন্যান্য উপকরণ ছাড়াও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়োজিত ফোর্সসমূহ ভোট কেন্দ্রে পৌঁছছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতীহীন ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগ, জাতীয়পার্টি, জাসদ, এনপিপি ও স্বতন্ত্রসহ মোট ৫ প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত ডা. মো. ইউনুস আলী সরকার এমপি (নৌকা), জাতীয়পার্টির প্রার্থী ব্যরিস্টার দিলারা খন্দকার শিল্পী (লাঙ্গল), জাসদের এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি (মশাল), এনপিপির মিজানুর রহমান তিতু (আম) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফর মো. জাহিদ নিউ (সিংহ)।

অবাধ-নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে জেলা রিটার্নিং অফিস প্রয়োজনীয় সংখ্যক প্রিজাইডিং, সহ-প্রিজাইডিং, পোলিং অফিসার ছাড়াও সার্বিক নিরাপত্তাসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালনে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, স্ট্রাইকিং ফোর্স, আনসার ভিডিপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ মোতায়েনসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া ইতোমধ্যেই সম্পন্ন করা হয়েছে।

এছাড়া নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে তাৎক্ষনিক আইনগত সহায়তা প্রদান ও ম্যাজিষ্ট্রেরিয়াল দায়িত্ব পালনে প্রয়োজনীয় সংখ্যক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ছাড়াও নিয়োজিত সংশ্লিষ্টরা দায়িত্ব পালন করবেনা বলে জানা গেছে। চিহ্নিত ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্র সমূহে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত ফোর্স নিয়োজিত করার মাধ্যমে নির্বাচনে নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে।

২৭ জানুয়ারি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের নিমিত্তে উভয় উপজেলার সহকারী রিটার্নিং অফিসারদ্বয় সংশ্লিষ্ট স্ব-স্ব ভোট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসারসহ দায়িত্বপ্রাপ্তদের নিকট ব্যালটসহ নির্বাচনের অন্যান্য সরঞ্জমাদি হন্তান্তর করেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, এ আসনে মোট ১৩২টি ভোটকেন্দ্রের ৭৮৬টি ভোটকক্ষের বিপরীতে ১৩২জন প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ৭৮৬জন ও ১৫৭২জন পোলিং অফিসার দায়িত্বপালন করবেন। মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ১১ হাজার ৮৪১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তন্মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৭শ’ ৩৯ জন এবং মহিলা ২ লাখ ১১ হাজার ১শ’ ২ জন।

পলাশবাড়ী উপজেলায় ৯ ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ৬৪টি। ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮৮ হাজার ১৪৮ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৯১ হাজার ১৮০ এবং মহিলা ৯৭ হাজার ৬৮ জন। সাদুল্লাপুর উপজেলায় ১১ ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ৬৮টি। ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ২৩ হাজার ৬’শ ৯৩ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯ হাজার ৬শ’ ৫৮ জন এবং মহিলা ১ লাখ ১৪ হাজার ৩৫ জন।

এদিকে, গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া জানান, উভয় উপজেলায় মোট ২ হাজার ৫শ’ পুলিশ সদস্য, বিজিপি ২০ প্ল¬াটুন, র‌্যাব ২০ প্লাটুন ও ১ হাজার ৫শ’ ৮৪ জন আনসার ভিডিপি সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবেন।

উল্লেখ্য, এরআগে ঐক্যফন্ট সমর্থিত ধানের শীষের প্রার্থী জাপার (জাফর) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ড. টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরী গত ২০ ডিসেম্বর মারা যায়। ফলে নির্বাচন কমিশন এ আসনে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ ভোটগ্রহণ স্থগিত করে ২৭ জানুয়ারি ২০১৯ নির্বাচনের পুনঃতফসিল ঘোষনা করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য