লালমনিরহাটে ইরি-বোরো বীজতলা কোল্ড ইনজুরিতে আক্রান্তআজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: গত কয়েক দিন ধরে শৈত্য প্রবাহ ও ঘন কুয়াশায় লালমনিরহাটের ৫ উপজেলার ইরি-বোরো ধানের বীজতলা গুলো কোল্ড ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে বীজ তলার চারা গুলো লালচে রঙ ধরেছে। পাশাপাশি দেখা দিয়েছে পচন রোগ। এতে জেলার হাজার হাজার কৃষক বিপাকে পড়েছেন। তবে কৃষি বিভাগ দাবী করেছেন, বীজ তলার এ ক্ষতিতে জেলার ইরি-বোরো ধানের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না।

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার পানবাড়ী গ্রামের কৃষক সফিকুল ইসলাম জানান, ঘন কুয়াশার পাশাপাশি শৈত্যপ্রবাহের কারণে তার ইরি-বোরো বীজতলা কোল্ড ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছে। চারা গুলো লালচে হয়ে পচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ঔষুধ প্রয়োগ করেও তেমন সফলতা হচ্ছে না। কৃষি অফিসের পরামর্শ অনুযায়ী বীজতলায় বাড়তি পানি দিয়েও তেমন ফল পাওয়া যাচ্ছে না। শীত এভাবে পড়তে থাকলে অধিকাংশ চারা নষ্ট হয়ে যাবে।

লালমনিরহাট কৃষি বিভাগের উপ-পরিচালক বিধু ভুষন রায় জানান, বর্তমানে তাপমাত্রা কিছুটা কম থাকার কারণে কিছু কিছু বীজতলায় কোল্ড ইনজুরি দেখা দিতে পারে। তবে আশংকার কারন নেই। এসব সমস্যায় আমরা কৃষকদের বীজ তলায় পানি দেওয়ার জন্য এবং যে সব জায়গায় কোল্ড ইনজুরি হচ্ছে সেসব জায়গায় ছত্রাক নাশক স্প্রে করার পরামর্শ দিয়েছি। এতে বীজতলার লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সমস্যা হবে না ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য