ট্রাক্টর নিয়ে বিপাকে গাইবান্ধার মানুষআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ কৃষিজমি চাষের জন্য ভারত থেকে আমদানী করা ইঞ্জিন দিয়ে গাইবান্ধায় মালামাল পরিবহনের জন্য স্থানীয়ভাবে প্রস্তুত করা ট্রাক্টর (কাকড়া) নামের এক ধরনের অবৈধ যান কাঁচা-পাকা রাস্তায় চলাচল করে নষ্ট করে ফেলছে রাস্তা। নেই সরকারিভাবে এই যানের কোন অনুমোদন। চালকদের নেই প্রশিক্ষণ, নেই ড্রাইভিং লাইসেন্সও।

তবুও এই অবৈধ যানটি শহর-গ্রামে চলছে বীরদর্পে। এই অবৈধ যানটি এতোটাই বেপরোয়া গতিতে চলার কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে অনেক বেশি। প্রতি বছরই জেলার বিভিন্নস্থানে এই গাড়ীর নিচে চাপা পড়ে মারা যাচ্ছে শিশু-নারীসহ সাধারণ মানুষ।

বিভিন্ন সময়ে সরেজমিনে দেখা গেছে, ট্রাক্টর (স্থানীয়ভাবে কাঁকড়া নামে ডাকা হয়) নামক এই যানের ডালা (মালামাল রাখার স্থান) বেশি বড় হওয়ার কারণে বেশি পরিমাণে বালু, মাটি, ইটসহ বিভিন্ন ধরনের ভারি মালামাল পরিবহন করা হয়। এতে করে কাঁচা ও পাকা রাস্তা নষ্ট হচ্ছে দ্রুত।

এসব বালু ও মাটি পরিবহনের জন্য কেটে ফেলা হচ্ছে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ। ফলে বর্ষা মৌসুমে এসব বাঁধ প্রবল পানির চাপে ভেঙ্গে যাওয়ার আশংকা থাকে। ইতোমধ্যে জেলার বিভিন্নস্থানে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ কেটে এসব কাঁকড়া চলাচলের কারণে চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে অনেকগুলো স্থান।

যদি বর্ষাকালে এসব ক্ষতিগ্রস্থ বাঁধ ভেঙ্গে যায় তাহলে চরম ক্ষতির সম্মুখীন হবে সাধারণ মানুষসহ রাস্তা, কৃষি জমি, মৎস্য চাষ প্রকল্পসহ অনেক সম্পদ। আর এই টাক্টর যারা চালায় তাদের অনেকেরই আবার বয়স ১৮ বছরের নিচে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অতিরিক্ত মুনাফার আশায় এসব ট্রাক্টরের (কাঁকড়া) মালিক ও চালকরা বেশি পরিমাণে মালামাল পরিবহন করে আসছে দীর্ঘদিন থেকে। এতে করে ইঞ্জিনের উচ্চ শব্দে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। ব্যস্ত শহরের বিভিন্ন অলিতে-গলিতেও দ্রুত গতিতে চলাচল করে এসব ট্রাক্টর। এতে করে বাড়ে দুর্ঘটনার ঝুঁকি।

ট্রাক্টরচালকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এসব ট্রাক্টর (কাঁকড়া) দিয়ে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন কাজের বালু, মাটি ও ইট পরিবহন করা হয়। এই যানটির ধারণ ক্ষমতা বেশি হওয়ার কারণে মালামাল পরিবহনও করা হয় বেশি পরিমাণে। এতে করে মানুষ উপকৃতও হচ্ছে। যদি এই যানটির মালামাল রাখার স্থান (ডালা) ছোট হতো তাহলে কম পরিমাণে মালামাল পরিবহন করা হতো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শহরের এক চাকরীজীবী বলেন, আগে ট্রলি নামের একটি ছোট ধারণ ক্ষমতার গাড়ীতে করে বালু, মাটি ও ইট পরিবহন করা হতো। এতে করে রাস্তা তেমন ক্ষতিগ্রস্ত হতো না।

এসব ট্রলি ধীরে চলতো বিধায় দুর্ঘটনায় প্রাণহানীও ঘটতো না। কিন্তু বর্তমানে বর্তমানে মালামাল পরিবহনের এই ট্রাক্টর (কাঁকড়া) নামক যানটি চরম বিপাকে ফেলেছে মানুষদের। কাঁকড়া নামক এই যানটির মালামাল ধারণ ক্ষমতা কমিয়ে দিতে ডালা ছোট করে তৈরি করতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য