মস্কো-ট্রাম্প আঁতাতের তথ্য দিতে চাওয়া বেলারুশ মডেল রাশিয়ায় আটকযুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণার সময় ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিপাবলিকান শিবিরের সঙ্গে মস্কোর আঁতাতের ‘প্রমাণ দিতে চাওয়া’ বেলারুশ মডেল নাস্তিয়া রিবকাকে আটক করেছে রাশিয়ার পুলিশ।

থাইল্যান্ড থেকে ফেরত পাঠানো ২৭ বছর বয়সী এ তরুণীকে মস্কোর শেরেমেতেয়েভো বিমানবন্দর থেকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বেলারুশের এ ফ্যাশন মডেলের আসল নাম আনাস্তাশিয়া ভাশুকেভিচ। অবৈধ ‘যৌন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র’ চালানোর অভিযোগে থাইল্যান্ডের পুলিশ গত বছর রিবকাসহ বেলারুশ ও রাশিয়ার বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছিল।

বিচারে ১৮ মাসের জেল হলেও নয় মাস পর তাদের ছেড়ে দিয়ে রাশিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়।

রিবকার আইনজীবী দিমিত্রি ঝাতসারিনস্কি জানান, তার মক্কেল বেলারুশের রাজধানী মিনস্কের কানেকটিং ফ্লাইট ধরতেই মস্কোর বিমানবন্দরে নেমেছিলেন। ট্রানজিট এলাকা থেকে রুশ কর্মকর্তারা তাকে আটক করেন।

এ ঘটনাকে ‘আন্তর্জাতিক কলঙ্ক’ অ্যাখ্যা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও ফুটেজও পোস্টও করেছেন ঝাতসারিনস্কি, যেখানে বিমানবন্দরের ভেতরে রুশ কর্মকর্তাদের এক নারীকে জোর করে হুইলচেয়ারে বসানোর চেষ্টা এবং পরে তাকে ধরে ধরে বাইরে নিয়ে যেতে দেখা গেছে।

ভিডিওতে রিবকাকে নেশাগ্রস্ত মনে হয়েছে। পরে রুশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে মস্কোর বিমানবন্দর থেকে বেলারুশ মডেলসহ চারজনকে ‘পতিতাবৃত্তিতে প্রলুব্ধ এবং এর চর্চা করার’ অভিযোগে আটকের কথা জানানো হয়েছে।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে এদের সর্বোচ্চ ছয় বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে, জানিয়েছে বিবিসি।

আটকদের মধ্যে বেলারুশের স্বঘোষিত ‘যৌনগুরু’ আলেক্সান্দার কিরিলভ আছে বলেও জানিয়েছে রাশিয়া। থাইল্যান্ডে রিবকার সঙ্গে কিরিলভও গ্রেপ্তার হয়েছিলেন, ভোগ করেছিলেন সাজা।

থাইল্যান্ডে আটক থাকা অবস্থাতেই ‘রাশিয়ায় বহিঃসমর্পণ করা হতে পারে’ আশঙ্কায় সেখানকার মার্কিন দূতাবাসের সহায়তাও চেয়েছিলেন তারা।

রিবকার দাবি, তার কাছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় রিপাবলিকান শিবিরের সঙ্গে যে রুশ সরকারের আঁতাত ছিল, সে বিষয়ে পর্যাপ্ত প্রমাণ আছে। রুশ ধনকুবের ওলেগ দেরিপাস্কা এ আঁতাতে মধ্যস্থতা করেছিলেন বলেও অভিযোগ তার।

বিশ্বজুড়ে ‘ক্ষতিকারক তৎপরতা’ চালানোর দায়ে যুক্তরাষ্ট্র যে সকল রুশ ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সে তালিকাতেও দেরিপাস্কার নাম আছে।

রাশিয়ান এ ধনকুবের অবশ্য তার বিরুদ্ধে আনা রিবকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন; বেলারুশের এ ফ্যাশন মডেল ও কিরিলভের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলাও ঠুকে দিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য