শিগগিরই মুক্তি পাচ্ছেন বালি বোমা হামলার মাস্টারমাইন্ড বশিরসতের বছর আগে বালির নাইটক্লাবে বোমা হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ আবু বকর বশিরকে সাজা শেষ হওয়ার আগেই কারাগার থেকে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ইন্দোনেশিয়া।

শুক্রবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দেশটির প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো উগ্রবাদী সংগঠন জেমায়াহ ইসলামিয়ার (জেআই) আধ্যাত্মিক গুরুকে শিগগিরই ছেড়ে দেয়া হবে বলে জানান, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

আচেহ প্রদেশের বিভিন্ন জঙ্গি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ২০১০ সালে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গ্রেপ্তারের পর বশিরের ১৫ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল।

৮১ বছর বয়সী এ ধর্মীয় নেতাকে ‘মানবিক কারণে’ ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উইদোদো।

“প্রথম কারণ অবশ্যই মানবিকতা সংক্রান্ত। তার অনেক বয়স হয়েছে, সে কারণে তার স্বাস্থ্যের বিষয়টিও বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে,” বলেছেন তিনি।

বশিরকে ছেড়ে দেওয়ার পেছনে ‘নিরাপত্তাজনিত কারণের’ কথা বললেও ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

এপ্রিলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে বালি বোমা হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’কে ছেড়ে দেওয়ার পেছনে অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটই বেশি প্রাধান্য পেয়েছে বলেও ধারণা পর্যবেক্ষকদের।

নির্বাচনে নতুন মেয়াদে দায়িত্ব নিতে লড়া উইদোদোর বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ দলগুলো মোল্লাদের ‘দোষী বানানোর প্রবণতার’ অভিযোগ করে আসছিল।

“এ ঘটনাই প্রমাণ করছে জোকোয়ি (উইদোদো এ নামেও পরিচিত) তেমন কাজ করেন না,” বশিরের ছেড়ে দেওয়ার খবরের পর ইন্দোনেশীয় গণমাধ্যমকে এমনটাই বলেছেন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা ইউসরিল মাহেন্দ্র।

২০০২ সালে বালির নাইটক্লাবগুলোতে হওয়া ভয়াবহ ওই বোমা হামলায় দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছিল। নিহতদের বেশিরভাগই ছিল অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক।

বশিরের কারামুক্তির খবরে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। ক্যানবেরা ইন্দোনেশিয়ার সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

জেআইয়ের আথ্যাত্মিক নেতা বশিরকে কবে বোগোরের কারাগার থেকে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে কিংবা কোন কোন শর্তে তার এ আগাম মুক্তি মিলেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য