02 19 19

মঙ্গলবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ইং | ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৩ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

Home - দিনাজপুর - কাহারোলে আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে ৪ শত পরিবার

কাহারোলে আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে ৪ শত পরিবার

কাহারোলে আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে ৪ শত পরিবারদিনাজপুর সংবাদাতাঃ প্রধানমন্ত্রী’র কার্যালয়ের আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের ‘জমি আছে ঘর নেই’ প্রকল্পের আওতায় দিনাজপুর জেলার কাহারোল উপজেলার ৪ শতটি অসহায় পরিবার মাথা গোঁজার ঠাঁই পাচ্ছে।

App DinajpurNews Gif

প্রকল্পের দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। এই মাসেই ঘরগুলো হস্তান্তর করার সম্ভব হবে। তবে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে কোন প্রকার অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না বলে সংশ্লিষ্টদের কঠোর বার্তা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নাসিম আহমেদ।

উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে ৪ শতটি ঘর দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। বারান্দা সহ ১৫ ফুট প্রস্থ ও ১৬ ফুট দৈর্ঘ্য প্রতিটি ঘর ও টয়লেট নির্মাণ বাবদ ১ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও প্রতিটি ঘর নির্মাণ বাবদ ১২ ফুট খুটি ১২টি ও ১০ ফুট খুটি ৯টি ব্যবহার করা হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নিয়ম অনুযায়ী যার জমি আছে কিন্তু ঘর নেই এই প্রকল্পের মাধ্যমে শুধু সেই ব্যক্তিই ঘর পাবেন।

এই প্রকল্পের আওতায় তালিকা ভূক্ত উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ঈশানপুর গ্রামের মনু বেগম জানান, আমাদের গোঁজার কোন ঠাঁই ছিল না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিয়েছেন, ঘর পেয়ে তারা খুব খুঁশি।

মুকুন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ,কে,এম ফারুক জানান, তার ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ‘ জমি আছে ঘর নেই’ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে প্রতিটি ঘর পরিপত্র মোতাবেক নির্মাণ করা হয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার ও প্রকল্পের সদস্য সচিব মোঃ জিয়াউর রহমান জানান, উপজেলার ৪ শতটি ঘর নির্মাণের ৪ কোটি টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের দিকে। সিডিউল অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে।

কাহারোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাসিম আহমেদ জানান, এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নে সরকারি বিধি মেনে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। গঠিত কমিটি যাচাই-বাছাই করে মালামাল ক্রয় করেছেন এবং ঘর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করছেন।

তিনি জানান, আমি সার্বক্ষনিক মনিটরিং এর মাধ্যমে যথাযথ ভাবে প্রকল্প বাস্তবায়নে চেষ্টা করছি। তবে কোথাও কোন ত্রুটি পাওয়া গেলে নীতিমালা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকেও এই প্রকল্পের কাজ তদারকি করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য