02 19 19

মঙ্গলবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ইং | ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৩ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

Home - জেনে রাখুন - যেসব কারনে সম্পর্ক নষ্ট হয়

যেসব কারনে সম্পর্ক নষ্ট হয়

যেসব কারনে সম্পর্ক নষ্ট হয়সম্পর্ক তৈরি করা যত সহজ, তার চেয়ে কঠিন সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা। সম্পর্ক নষ্ট করার জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী। আমাদের নিজেদের ছোট ছোট বদ অভ্যাসগুলোই যথেষ্ট একটা সম্পর্ক শেষ করে দেওয়ার জন্য।

App DinajpurNews Gif

সম্পর্কের টানাপোড়েনে ছেলে-মেয়ে দুজনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে ত্যাগ করতে হবে যে অভ্যাসগুলো:

১. প্রশংসা না করা

সম্পর্কে প্রশংসা খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রশংসা ভালোবাসা বৃদ্ধি করার সাথে সাথে পারস্পরিক সম্পর্ক মজবুত করে তোলে। সঙ্গীর কাজের প্রশংসা করুন, তা যত ছোট কাজই হোক না কেন। ছোট একটি ধন্যবাদ সম্পর্ককে আরও সুন্দর করে তুলবে।

২. নজরদারী বা গোয়েন্দাগিরি করা

সঙ্গীকে বিশ্বাস করুন। তার ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট, ই-মেইল, সোশ্যাল মিডিয়া কার্যকলাপে নজরদারী করা থেকে বিরত থাকুন। কোনো প্রশ্ন থাকলে সরাসরি তার সাথে সেই বিষয়ে কথা বলুন। মনে রাখবেন আলোচনা সব সমস্যার সমাধান করে দেয়।

৩. দোষারোপ করা

একে অপরকে দোষ দেওয়া সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার অন্যতম একটি কারণ। আপনি যদি তাকে ভালোবাসেন তবে তার দোষ ধরা বন্ধ করুন। হয়তো তার অভ্যাসটি খারাপ, দোষ না দিয়ে তাকে বুঝিয়ে বলুন। দেখবেন নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি অনেকটা কমে গেছে।

৪.অপেক্ষা করানো

আপনি কি সবসময় ডেটিং এ দেরি করে যান? কিংবা ফোন করার কথা ভুলে যান? এই বিষয়টি আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ মনে না হলেও,সম্পর্ক নষ্ট করার জন্য এটি অনেকাংশে দায়ী হয়ে থাকে। সব সময় অপেক্ষা করানো, কথা দিয়ে কথা না রাখা সম্পর্কের প্রতি আপনার অনীহা প্রকাশ করে।

৫. মিথ্যা বলা

যেকোনো সম্পর্কের জন্য মিথ্যা ক্ষতিকর। এটি ঠিক যে সত্য সব সময় তিক্ত। কিন্তু সম্পর্কের ক্ষেত্রে যত কঠিন সত্য হোক না কেন তা সঙ্গীকে বলে দেওয়া উচিত। হয়তো সাময়িকভাবে সম্পর্ক কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হবে, তবে দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্কের জন্য এটি উপকারী।

৬.সময় কম দেওয়া

অনেকেই মনে করে থাকেন সম্পর্কে ভালোবাসা থাকাটাই শুধু জরুরি, আর কিছু নয়। সম্পর্কে একে অপরকে সময় দেওয়াটাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। দিনের কিছুটা সময় সঙ্গীর জন্য রেখে দিন। তাকে ফোন করুন। সময় থাকলে তার সাথে কোথাও ঘুরতে যান।

সম্পর্ক একটি চারা গাছের মতো। একটি গাছকে যেমন যত্ন করে বড় করে তুলতে হয়। ঠিক তেমনি সম্পর্কের ক্ষেত্রেও একটু যত্ন,বিশ্বাস আর অনেকখানি ভালোবাসার প্রয়োজন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য