হাকিমপুর (দিনাজপুর) সংবাদদাতাঃ ১৩ জানুয়ারি দিনাজপুরের হিলি ট্রেন দূর্ঘটনা দিবস। আজ থেকে ২৪ বছর আগে ১৯৯৫ সালের ১৩ জানুয়ারী হিলি রেলস্টেশনে ঘটেছিল এক হৃদয় বিদারক ট্রেন দূর্ঘটনা। সে দিনের কথা মনে হলে আজও গা শিউরে উঠে এলাকাবাসীর।

বাংলাহিলি রেলওয়ে একতা কাবের তৎকালীন সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেনসহ কয়েকজন প্রত্যদর্শীরা জানান, সেদিন রাত সোয়া ৯ টায় গোয়ালন্দ থেকে পার্বতীপুরগামী ৫১১ নং লোকাল ট্রেনটি ১ নম্বর রেল লাইনে দাঁড়িয়েছিল। কর্তব্যরত স্টেশন মাষ্টার ও পয়েন্টসম্যানের দায়িত্বহীনতার কারণে সৈয়দপুর থেকে খুলনাগামী ৭৪৮ নং আন্তঃনগর সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনটি একই লাইনে প্রবেশ করলে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে।

এতে বিকট শব্দে লোকাল ট্রেনটির ইঞ্জিনসহ দু’টি বগি দুমড়ে মুচড়ে যায়। হতাহত হয় শতাধিক ব্যাক্তি। যদিও সরকারিভাবে নিহতের সংখ্যা ধরা হয় ২৭ জন।

পরের দিন ১৪ জানুয়ারি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ছুটে আসেন দূর্ঘটনাস্থলে। ঘোষনা দেন নিহত ও আহতদের ক্ষতিপুরণের। গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি। কিন্তু ২৪ বছরেও আহত ও নিহতদের অনেক পরিবার পায়নি ক্ষতি পুরণের সেই টাকা। আলোর মুখ দেখেনি তদন্ত কিমিটির প্রতিবেদন।

রেলওয়ে একতা কাবের সভাপতি আমজাদ হোসেন খাঁন জানান, হিলি রেল স্টেশনে ট্রেন দূর্ঘটনায় নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনায় প্রতি বছরের ন্যয় এবারও কালো ব্যাচ ধারনসহ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য