ঠান্ডায় এই ভুলগুলো করছেন না তোশীতের দিনগুলোয় ত্বকের কিছু না কিছু সমস্যা লেগেই থাকে! সারাক্ষণ ময়শ্চারাইজ়ার, ক্রিম মেখেও সামাল দেওয়া যায় না ত্বকের রুক্ষভাব, ফাটা গোড়ালি, হাতে পায়ে শুকনো খড়ির মতো দাগ। অনেক সময় আবার সাধারণ কিছু ভুলের জন্য ক্রিম বা ময়শ্চারাইজ়ারের সুফল ত্বকের গভীরে পৌঁছোয় না। আসুন এক নজরে দেখে নিই, শীতকালে ত্বকের যত্নের সময় কী কী ভুল এক্ষুনি শুধরে নেওয়া দরকার!

ভুল ১
সারাবছর একই ফেসওয়াশ ব্যবহার৷ শীতে আবহাওয়ার তাপমাত্রা আর বাতাসের চাপের পরিবর্তন হয়। ফলে গরমে আপনি যে ফেসওয়াশ ব্যবহার করেন, তা কিন্তু শীতে কার্যকর নয়।
সমাধান: গরমে জেল ক্লেনজ়ার ব্যবহার করার অভ্যেস থাকলে শীতের দিনগুলোয় ক্রিম-বেসড ক্লেনজ়ার বেছে নেওয়াই ভালো। কোমল ক্লেনজ়ার ব্যবহার করুন, বারবার মুখ ধোবেন না। ক্রিম-বেসড ফোম ফেসওয়াশ কোমলভাবে ত্বক পরিষ্কার করে, ত্বকের উপর মৃত কোষ জমতে দেয় না।

ভুল ২
সানস্ক্রিন ছাড়া রোদে বেরোনো
সমাধান: শীতকালে গায়ে রোদ মাখতে ভালো লাগে ঠিকই, কিন্তু সানস্ক্রিন ছাড়া রোদে বেরোলে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। কারণ সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি শীতেও সমান সক্রিয় থাকে। তাই সানস্ক্রিন না মেখে বাইরে পা দেবেন না।

ভুল ৩
অতিরিক্ত গরম জলে স্নান৷ স্নানের জল বেশি গরম হলে তা আপনার ত্বক থেকে আর্দ্রতা ছিনিয়ে নেয়। ফলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায় খুব তাড়াতাড়ি।
সমাধান: ঈষদুষ্ণ গরম জলে স্নান করুন। দশ মিনিটের বেশি সময় ধরে স্নান করবেন না। স্নানের ঠিক পরেই সারা শরীরে ভালো করে ময়শ্চারাইজ়ার বা হাইড্রেটিং ক্রিম লাগিয়ে নিন।

ভুল ৪
রুক্ষ ত্বকে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগানো৷ আপাতভাবে মনে হয় শুষ্ক ত্বকে খানিকটা পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নিলে বোধ হয় ত্বকে আর্দ্রতা ফিরে আসবে। আসলে কিন্তু এতে ত্বক বেশি শুষ্ক হয়ে যায়!
সমাধান: পেট্রোলিয়াম জেলি নয়, ভরসা রাখুন ক্রিম-বেসড ময়শ্চারাইজ়ারের উপরেই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য