দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলার ৬টি সংসদীয় আসনের ৭৯১টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৬৮০টি গুরুত্বপূর্ণ ও ১১১টি সাধারণ ভোট কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করে ভোট গ্রহণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

দিনাজপুর পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম জানান, জেলার ৬টি সংসদীয় আসনের ৭৯১টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৬৮০টিই গুরুত্বপূর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। অপর ১১১টি কেন্দ্রকে সাধারণ হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তিনি জানান, পুলিশসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার গোপন প্রতিবেদনে ভোট কেন্দ্রগুলো গুরুত্বপূর্ণ ও সাধারণ কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণে সুপারিশ করা হয়েছে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের জন্য জেলার ৬টি সংসদীয় আসনে গুরুত্বপূর্ণ ও সাধারণ কেন্দ্র অনুযায়ী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিয়োগ করা হবে। মোট ১১ হাজার ২০৩ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ভোট কেন্দ্রে ও টহল ডিউটিতে দায়িত্ব পালন করবেন। বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে আনসার সদস্য সবচেয়ে বেশি থাকবে।

প্রত্যেকটি ভোট কেন্দ্রে ১০ জন করে আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবে। এর মধ্যে ৬ জন পুরুষ ও ৪ জন মহিলা রয়েছে। আনসারদের মধ্যে অস্ত্রধারী এবং ৮ জন লাঠিধারী থাকবে। তালিকাভুক্ত কেন্দ্রগুলোর মধ্যে সাধারণ কেন্দ্রে ১ জন অস্ত্রধারী পুলিশ সদস্য এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ২ জন অস্ত্রধারী পুলিশ সদস্য থাকবে।

এছাড়া টহল ডিউটিতে বিজিবির ১২৩০ সদস্য, র‌্যাব ১১২ সদস্য, সেনা বাহিনীর প্রায় ২০০ সদস্য, পুলিশের ১ হাজার ৭৫১ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। নির্বাচনের দিন তাৎক্ষনিক যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ঝটিকা অভিযানের জন্য প্রস্তুত রাখা হবে।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মোঃ মাহমুদুল আলম জানান, জেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তার জন্য ভোটের দিনে ৩১ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এবং ১৪ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ভোট কেন্দ্র এলাকাগুলোতে দায়িত্ব পালন করবেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও মনিটরিংয়ের জন্য জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে মনিটরিং কেন্দ্র খোলা হয়েছে। মনিটরিং কেন্দ্রের সার্বিক দায়িত্বে থাকবেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ জয়নুল আবেদিন।

সূত্রটি জানায়, জেলার সংসদীয় এলাকা অনুযায়ী দিনাজপুর-১ আসনের ১২৩টির মধ্যে ৯৫টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ২৮টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র।

দিনাজপুর-২ আসনের ১১৩টির মধ্যে ৭৫টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ৩৮টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র, দিনাজপুর সদর-৩ আসনের ১২৮টির মধ্যে ১২৫টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ৩টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র, দিনাজপুর-৪ আসনের ১২৩টির মধ্যে ১২০টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ৩টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র, দিনাজপুর-৫ আসনের ১৩৯টির মধ্যে ১১৭টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ২২টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র এবং দিনাজপুর-৬ আসনের ১৬৫টির মধ্যে ১৪৮টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ১৭টি ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্র।

ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারেরা যেন নিরাপদে কোন ধরনের ঝুঁকি ছাড়াই ভোট দিতে পারেন সেই জন্য বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য