ষ্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে এক ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী বোনের বাড়ীতে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষনের শিকার হয়েছে। ধর্ষিতাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গত বুধবার উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে এই ধর্ষনের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ওই ধর্ষিতার পিতা বাদি হয়ে ওই দিন রাতে ফুলবাড়ী থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে, ও ধর্ষেনের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে মোস্তাকিম (১৯) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের হাতে আটক মোস্তাকিম শিবপুর পশ্চিম পাড়া গ্রামের জিয়ারুল ইসলামের ছেলে।

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আব্দুর রহমান বলেন, ধর্ষনের শিকার ওই ছাত্রী উপজেলা দৌলতপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে তার বোনের বাড়ীতে বেড়াতে আসে। তার বোনের বাড়ীর পিছনে খেলা করার সময় শিবপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে সোহানুর রহমান সোহান ওই ছাত্রীকে ফুসলিয়ে একটি নির্জন বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে, তার সহযোগী মোস্তাকিম ও মতিউর রহমানের সহযোগীতায় ধর্ষন করে।

এতে মেয়েটির রক্তক্ষরন শুরু হলে তারা ওই ছাত্রীকে রেকে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় ধর্ষক সোহানুরের সহযোগী মোস্তাকিমকে আটক করা হলেও, সোহানুর ও তার অপর সহযোগী পলাতক রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য