লিবিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে হামলার দায় স্বীকার আইএস-এরলিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আত্মঘাতী হামলায় অন্তত ৩ জন নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছে আরো ২১ জন। দেশটির পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়।

জিহাদি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ইতিমধ্যে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

দেশটির বিশেষ বাহিনীর মুখপাত্র তারাক আল-দাওয়াস বলেন, মন্ত্রণালয়ের কাছে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ হলে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।

তিনি বলেন, এ সময় ভবনের তৃতীয় তলায় একজন আত্মঘাতী হামলাকারী শরীরে বেঁধে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। আরেকজন হামলাকারীর সু্টকেসে বিস্ফোরক ছিল। এটি বিস্ফোরিত হলে সে মারা যায়।

লিবিয়ার ত্রিপোলিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে হামলার ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএস এর পক্ষ থেকে দায় স্বীকার করা হয়েছে। বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) আইএস-এর কথিত বার্তা সংস্থা ‘আমাক’- এ দায় স্বীকারের খবর প্রকাশ করেছে।

মঙ্গলবার (২৫ ডিসেম্বর) লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আত্মঘাতী হামলা হয়। তিন হামলাকারী গাড়িবোমা দিয়ে হামলা চালায়। এতে দুইজন নিহত হন। ক্ষতিগ্রস্ত হয় যানবাহন ও ভবন। এরপর তারা মন্ত্রণালয়ে গুলি শুরু করে। লিবিয়া কর্তৃপক্ষ জানায়, হামলায় অন্তত ২১ জন আহত হয়েছে। শুরুতে লিবিয়ার স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ তিনজন নিহত হওয়ার খবর জানিয়েছিল।

বুধবার, আমাক-এ প্রকাশিত বিবৃতিতে আইএস-এর পক্ষ থেকে এ হামলার দায় স্বীকার করা হয়। দাবি করা হয়, তাদের তিন সদস্য এ হামলা চালিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য