রংপুর চেম্বারের বার্ষিক সাধারণ সভা-২০১৮ অনুষ্ঠিতরংপুর চেম্বার ভবনের আরসিসিআই অডিটরিয়ামে রংপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি‘র ২০১৮ ইং সালের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। চেম্বার প্রেসিডেন্ট মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটুর সভাপতিত্বে এই বার্ষিক সাধারণ সভায় আলোচ্যসূচী মোতাবেক বিগত বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী ও প্রেসিডেন্ট কর্তৃক বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ ছাড়াও রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র ০১-১২-২০১৭ইং তারিখ থেকে ৩০-১১-২০১৮ইং তারিখ পর্যন্ত নিরীক্ষিত ১২ (বারো) মাসের অডিট রিপোর্ট ও স্টেটমেন্ট অব একাউন্টস, অডিটর নিয়োগ এবং ২০১৮ইং সালের সংশোধিত ও ২০১৯/২০২০ইং সালের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করা হয়। অতঃপর উপর্যুক্ত বিষয়সমূহ সঠিক থাকায় উপস্থিত সদস্যগণ সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদন করেন।

সভাপতির অনুমতিক্রমে বার্ষিক সাধারণ সভার বিভিন্ন পর্বের আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন রংপুর চেম্বারের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রংপুর জেলা ইউনিটের কমান্ডার ও এফবিসিসিআই এর পরিচালক আলহাজ্ব মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম, রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজতোবা হোসেন রিপন, সহ-সভাপতি মনজুর আহমেদ আজাদ, চেম্বারের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আমিরুল হক খোকন, সহ-সভাপতি মোঃ মোজাম্মেল হক ডাম্বেল, রংপুর চেম্বারের সাবেক পরিচালক মোঃ ফজলুল হক, চেম্বারের সাধারণ সদস্য মোঃ আজিজুল্ল্যাহ, মোক্তাদির হোসেন লিটন, সুলতান মাহমুদ, রাশেদ রানা রাসু, গোলাম মোস্তফা, সোহেল মোঃ নুরে এলাহী, মোঃ হারুনার রশিদ, মোঃ আতাউর রহমান, কাজী মোঃ আবুল কাশেম, নাফিজা সুলতানা, আশেক আলী ও মাহবুবুল হক রিংকু। তাঁরা প্রত্যেকেই রংপুর চেম্বারের কর্মকান্ডকে আরো বেশি গতিশীল ও ত্বরান্বিত করতে বিভিন্ন দিক-নির্দেশনামূলক প্রস্তাব রাখেন।

বার্ষিক সাধারণ সভায় রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটু রংপুর বিভাগের উন্নয়ন, ব্যাংকিং খাত,তরুণ উদ্যোক্তা সৃষ্টি এবং সার্কভূক্ত দেশগুলোর মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন বছরে ওয়ার্কশপ/সেমিনার আয়োজনের মাধ্যমে রংপুর বিভাগের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করার দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, বিদ্যমান পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদকালে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পায়ন কার্যক্রম নির্বিঘেœ পরিচালনার লক্ষ্যে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী, জেলা প্রশাসন, বিভাগীয় প্রশাসন, আমদানি-রপ্তানি, ব্যাংকিং, ভ্যাট-ট্যাক্স ইত্যাদি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিভিন্ন সময়ে সভা/সেমিনারের আয়োজন করা হয়। এসব সভায় ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিদের বিভিন্ন সমস্যা আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে উপস্থাপন করেছি এবং ইতিমধ্যে অনেকগুলো সমস্যার সমাধান করেছি।

এছাড়া তিনি দ্বি-পাক্ষিক ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতের সাথে মত বিনিময় সভার পাশাপাশি বাংলাদেশী পণ্যের রপ্তানি ও বিনিয়োগ আকর্ষণে লক্ষ্যে ইতিমধ্যে রংপুর চেম্বার বিভিন্ন বিজনেস এক্সপো-তে অংশগ্রহণের বিষয়টি সভাকে অবহিত করেন। পরিশেষে তিনি রংপুর চেম্বারের গতি আরো ত্বরান্বিতকরণে উপস্থিত ব্যবসায়ী সমাজের সার্বিক দিক নির্দেশনা, পরামর্শ ও সহযোগিতা কামনা করার পাশাপাশি বার্ষিক সাধারণ সভায় কষ্ট স্বীকার করে উপস্থিত হয়ে সভাকে সাফল্যমন্ডিত করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

বার্ষিক সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন চেম্বারের পরিচালকবৃন্দের মধ্যে এমদাদুল হোসেন, মোঃ আজিজুল ইসলাম মিন্টু, মোঃ রিয়াজ শহিদ শোভন, মোঃ ওবায়দুর রহমান রতন, মোঃ আমজাদ হোসেন চৌধুরী, পার্থ বোস, মোঃ মোতাহার হোসেন মন্ডল মওলা, মোঃ শাহজাহান বাবু, দেবব্রত সরকার রঞ্জু, মোঃ হাবিবুর রহমান রাজা, প্রণয় বণিক, খেমচাঁদ সোমানী (রবি), মোঃ জুলফিকার আজিজ খান, অজয় প্রসাদ বাবন, চেম্বারের সাবেক পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, সাবেক নির্বাহী সদস্যবৃন্দ, রংপুর চেম্বারের জেনারেল ও এসোসিয়েট গ্রুপের সদস্য/সদস্যাবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য