একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনী প্রচারনার অংশ হিসাবে আ.লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ পীরগঞ্জ আসছেন। তাঁর আগমন উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। সর্বত্র সাজসাজ রব। স্

থানীয় আ.লীগ নেতারা বলেছেন জনসভায় লাখ মানুষের সমাগম হবে। রোববার সকালে আকাশ পথে ঢাকা থেকে সৈয়দপুর আসবেন প্রধানমন্ত্রী।

তারপর সড়ক পথে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় তারাগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ মাঠে রংপুর-২ আসনের আ.লীগ প্রার্থী আহসানুল হক ডিউক এর পক্ষে নির্বাচনী জনসভায় ভাষন দিবেন।

এরপর দুপুর ২টায় পীরগঞ্জ উপজেলার পীরগঞ্জ সরকারী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে মহাজোটের মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর পক্ষে নির্বাচনী জনসভায় ভাষন দিবেন।

তার আগমন বার্তা শোনার পর থেকে পীরগঞ্জ উপজেলা আ.লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা আনন্দ মিছিল করেছে। গোটা উপজেলাকে সাাজানো হয়েছে বর্নিল সাজে।

পীরগঞ্জ উপজেলায় তার শশুর বাড়ী ফতেপুর জয় সদনে যাবেন এবং প্রয়াত স্বামী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার কবর জিয়ারত করার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম।

তিনি আরও জানান পীরগঞ্জের বধু মাতা বর্তমান প্রধাণমন্ত্রী পীরগঞ্জে দুই বারের সাংসদ শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে উৎসব মুখর পেিরবেশের সৃষ্টি হয়েছে।

রংপুর জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড:রেজাউল করিম রাজু বলেন,রংপুরের মানুষ জাতির জনকের কন্যাকে স্বাগত জানাতে অধীর আগ্রহে উপজেলাবাসী প্রতিক্ষারত।

প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এর জন্য আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা দিনরাত পরিশ্রম করছেন। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নেয়া এখন সময়ের ব্যাপার।

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিরাপত্তায় পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে বিপুল সংখ্যক গোয়েন্দা সদস্য কাজ করেছে। এ ছাড়া জনসভা কে কেন্দ্র করে পাঁচ স্তরের নিñিদ্র নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য