দিনাজপুর-১ আসনে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা নৌকা বিজয়ের পক্ষে কাজ করার ঘোষনা দিলেনসংবাদ সম্মেলনঃ দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী কোন তৎপরতা না থাকায় ও নেতা কর্মীদের সাথে কোন সমন্বয় না করায় বীরগঞ্জ-কাহারোল উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা কর্মীরা মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার ঘোষনা দিয়েছেন।

বুধবার দিনাজপুর প্রেসক্লাবের কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলন করে নেতা কর্মীরা এই ঘোষণা দেন। জাতীয় পার্টির প্রার্থীর বিজয়ের কোন সম্ভাবনা না থাকায় বীরগঞ্জ-কাহারোল উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রতিটি ইউনিয়নের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ শতাধিক নেতাকর্মী এ ঘোষনা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, দিনাজপুর-১ আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী শাহিনুর ইসলাম নির্বাচনে প্রার্থী হলেও, তার নিষ্কৃয়তা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তিনি নেতা কর্মীদের সাথে কোন সমন্বয় করছেন না। এমনকি এখন পর্যন্ত তিনি নির্বাচন পরিচালনা কমিটিও গঠন করেন নি। তাছাড়া জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা শাহিনুর ইসলামের বিজয়ের কোন সম্ভাবনা দেখছেন না। ফলে যে ক’টি ভোট তিনি পাবেন, সেটি মহাজোটের ভোট নষ্ট করবে।

তাই বীরগঞ্জ-কাহারোল জাতীয় পার্টির নেতা কর্মীরা সর্ব সম্মতভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যে, তারা মহাজোটের প্রার্থীর পক্ষে থাকবেন এবং নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর মনোরঞ্জন শীল গোপাল এর বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করবেন। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল বুধবার সকাল ১১ টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে মহজোটের প্রার্থীর নৌকার পক্ষে কাজ করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে বীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাসান মো. নিজামুদ্দৌলা মতি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম মিলন, কাহারোল উপজেলা যুগ্ম আহবায়ক সফিকুল ইসলাম, রশিদুল ইসলাম, সদস্য সচিব আনোয়ার হোসেন, বীরগঞ্জ উপজেলার সহ-সভাপতি ও পাল্টাপুর ইউনিয়নের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু, শিবরামপুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক দুলাল হোসেন, পলাশবাড়ী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রিফাত হোসেন, পাল্টাপুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, নিজপাড়া ইউনিয়নের জয়নাল পাটোয়ারী, ১১ নং মরিচা ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ ও সাধারণ সম্পাদক দুলাল হোসেন, ১ নং ইউনিয়নের সোহেল রানা, ২ নং ইউনিয়নের সভাপতি আলী হোসেন, যুব সমিতির সহ-সভাপতি নাজমুল, ৫ নং ইউনিয়নের সভাপতি সৈয়দ নবাবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবু সাইয়ুম, ৯ নং ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক রইছুল আযম, ১০ নং ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক আলম, ৭ নং ইউনিয়নের সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মতিন চন্দ্র সিং, ৮ নং ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক দুলাল হোসেন, ৩ নং ইউনিয়নের সভাপতি হবিবর রহমানসহ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য