PARBATIPUR PICএকরামুল হক বেলাল,পার্বতীপুরঃ পার্বতীপুর উপজেলার হাবড়ার দু’মাদক সম্রাটকে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এলাকাবাসী পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তার উপর আস্তা হারিয়ে এখন র‌্যাবের সরনাপূর্ন হচ্ছেন। জানা যায়, পার্বতীপুর উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের হাবড়া বাজার এলাকার মাদক ব্যাবসায়ী মৃত সামসুদ্দিনের পুত্র আবুল হোসেন (৪০)এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে মদ গাঁজা ও ফেন্সিডিল ব্যাবসা করে আসছিল।

মঙ্গলবার বিকেলে এলাকাবাসী অতিষ্ঠিত হয়ে ৫ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল বিত্রি“র সময় হাতে-নাতে আটক করে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, আবুল হোসেন ওরফে বুক দোলা আবু পার্বতীপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তাকে নিয়মিত মাসোয়ারা চুক্তি ভিত্তিক প্রকাশ্য এলাকায় মাদক ব্যাবসা চালিয়ে আসছিল। তার নিদ্দের্শেই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তা এলাকার অন্যান্য মাদক ব্যাবসায়ীদের আটক করে এলাকাবাসী জানায়।

এই ঘটনার পর-পরই পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ তড়িঘড়ি করে একই ইউনিয়নের পুর্ব ঢাকুলা কাপাশিকোপা গ্রামের মাদক সম্রাট নামে পরিচিত মৃত্যু আলিফ উদ্দিনের পুত্র এলাম উদ্দিন(৫৫)কে ৫ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার করে নিয়ে আসে। এলাকাবাসীরা ক্ষোভে আরো বলেন, পুলিশি তৎপরতা না থাকায় এবং দূর্নীতিবাজ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তার কারনে পার্বতীপুর উপজেলায় দিন-দিন মাদক ব্যাবসা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এলাকাবাসী পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তার উপর আস্তা হারিয়ে এখন র‌্যাবের সরনাপূর্ন হচ্ছেন। গত শনিবার র‌্যাব-১৩ মাহাবুবুল ইসলাম ডিএডি এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ পার্বতীপুর উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের হাফেজিয়া মাদরাসার নিকট ৩১ বোতল ফেন্সিডিলসহ ডিসকোভার ১৩৫ সিসি মোটরসাইকেলে মাদক ব্যাবসায়ী তছলিমকে গ্রেফতার করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য