লালমনিরহাটে প্রতীক পেয়ে প্রচারে প্রার্থীরাআজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের তিনটি আসনের নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের পর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারে নেমেছেন প্রার্থীরা।

সোমবার লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক ও রিটানিং অফিসার মোহাম্মদ শফিউল আরিফ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লালমনিরহাট জেলার ৩টি আসনে মহাজোট, ঐক্যফ্রন্ট ও অনান্য দলের ১৬ জন প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ করেন।

এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসক ও রিটানিং অফিসার প্রার্থীদেরকে নির্বাচন নীতি মালা ও বিধি-বিধান মেনে চলার আহবান জানান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লালমনিরহাট-১ আসন থেকে ৭ জন, লালমনিরহাট-২ আসন থেকে ৫ জন ও লালমনিরহাট-৩ আসন থেকে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। প্রার্থীরা প্রতীক পাওয়ার পরে নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছেন।

লালমনিরহাট ১ আসনে ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগের মোতাহার হোসেন (নৌকা), ঐক্যফ্রন্টের ব্যারিস্টার হাসান রাজিব প্রধান (ধানের শীষ), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আব্দুস সাত্তার (আম), জাতীয় পার্টির (এরশাদ) মেজর খালেদ আখতার (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলনের হাবিবুর রহমান বকুল (হাত পাখা), জাসদের সাদিকুল ইসলাম (মশাল), বিএনএফ- এর আলমগীর হোসেন মুরাদ (টেলিভিশন)।

লালমনিরহাট-২ আসন ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থী হলেন, মহাজোটের নুরুজ্জামান আহমেদ (নৌকা), ঐক্যফ্রন্টের রোকন উদ্দিন বাবুল (ধানের শীষ), মুসলিম লীগের বাদশা মিয়া (হরিকেন), এনপিপির শরিফুল ইসলাম (আম), ইসলামী আন্দোলন ইব্রাহিম হোসেন খান (হাতপাখা)।

লালমনিরহাট-৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থীর সংখ্যা ৪ জন। তারা হলেন, মহাজোটের গোলাম মোহাম্মদ কাদের (লাঙ্গল), ঐক্যফ্রন্টের অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু (ধানের শীষ), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) আজমুল হক পাটোয়ারী (মই), ইসলামী আন্দোলন মোকছেদুল ইসলাম (হাত পাখা)।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য