দিনাজপুরে যহ্মা রোগ প্রতিরোধে মত বিনময় সভা অনুষ্ঠিতদিনাজপুর সংবাদাতাঃ ৯ ডিসেম্বর রোববার জাতীয় যহ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) আয়োজিত শিল্প সহায়ক কেন্দ্র বিসিক দিনাজপুরে শিল্প উদ্যোক্তাদের নিয়ে যহ্মা বিষয়ক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিসিক দিনাজপুরের উপ-ব্যবস্থাপক মোঃ সাজেদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বক্ষ্যব্যাধি ক্লিনিক কালিতলা’র কনসালটেন্ট ডাঃ সঞ্চিতা দাস। স্বাগত বক্তব্য রাখেন নাটাব দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কাশী কুমার দাস।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিসিক তথ্য ও জরিপ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ। অংশগ্রহণকারীদের পক্ষে বিভিন্ন প্রশ্ন তুলেন মোঃ রুহান হোসেন, আব্দুর রহমান, পেয়ার মোহাম্মদ, মোর্শেদা বেগম।

বক্তারা বলেন, যহ্মামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে প্রতিটি সেক্টরের মানুষদের যহ্মা বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। এক নাগাড়ে দুই সপ্তাহ বা তার অধিক সময় ধরে কাশি, সন্ধ্যায় বা রাতে জ্বর আসা, খাবার অরুচি, ওজন কমে যাওয়া, বুকে, পিঠে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, কখনো কখনো কাশির সঙ্গে রক্ত ইত্যাদি দেখা দিলে কফ পরীক্ষা করানো প্রয়োজন।

প্রধান অতিথি ডাঃ সঞ্চিতা দাস বলেন, বর্তমানে দেশে একলাখ মানুষের মধ্যে জরিপ চালিয়ে দেখা গেছে ২৬০ জন যহ্মা রোগী রয়েছে। তাদের ৩১ শতাংশ এখনো চিকিৎসার বাহিরে রয়েছে। দেশে বর্তমানে এমডিআর রোগীর সংখ্যা ৫-৬ হাজার। ২০১৭ সালে যহ্মা সনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৪৪ হাজার ২০১ জন। ২০১৭ সালে যহ্মা রোগীর মৃত্যুর হার প্রতি লাখে ৪ জন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য