ইয়েমেনের হুদাইদা বন্দর হস্তান্তরের দাবি নাকচ করে দিয়েছে দেশটির জনপ্রিয় হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন। সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে অনুষ্ঠিত শান্তি আলোচনায় পলাতক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদির অনুগত পক্ষ ওই দাবি তুলেছিল।

শান্তি আলোচনার দ্বিতীয় দিনে গতকাল (শুক্রবার) হাদির অনুগত পক্ষ রাজধানী সানার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ফ্লাইটে তল্লাশি চালানোরও দাবি তোলে। তবে এর কোনো দাবিই মেনে নেয় নি হুথিরা। জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় এ শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছে।

হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের মুখপাত্র মুহাম্মাদ আবদুস সালাম বলেন, হুদাইদা বন্দরকে অবশ্যই সামরিক সংঘাতের বাইরে রাখতে হবে। এছাড়া, সব পক্ষকে নিরস্ত্র করার আগে সরকার গঠন করতে হবে।

ইয়েমেন সংকট শুরুর পর মানসুর হাদির অনুগত সন্ত্রাসীরা ও সৌদি জোটের ভাড়াটে সেনারা হুদাইদা বন্দর কার্যত অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তারপরও বহির্বিশ্ব থেকে ইয়েমেনে যে সামান্য পরিমাণ ত্রাণ সহায়তা আসে তার বেশিরভাগই এই হুদাইদা বন্দর প্রবেশ করে। সৌদি জোট কয়েকবার বন্দরটি দখলের জন্য অভিযান চালালেও হুথিদের প্রতিরোধের মুখে তারা সফল হতে পারে নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য