দিনাজপুরে জলাতঙ্ক অবহিতকরণ সভাদিনাজপুর সংবাদাতাঃ ৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কার্যালয়ের উপশহরস্থ হলরুমে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঢাকা এর আয়োজনে এবং প্রাণী সম্পদ বিভাগ দিনাজপুরের বাস্তবায়নে আগামী ২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক রোগ নির্মুলের লক্ষ্যে উপজেলা অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ আবুল কাশেম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ফরিদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফিরুজুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ হাসমিন লুনা।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ অফিসার ডাঃ মোঃ আরোজ উল্লাহ। উপস্থিত চেয়ারম্যানদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ৮নং শংকরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ইসাহাক আলী। কর্মসূচীর উপর বিস্তারিত আলোচনা করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহাখালা ঢাকার কনসালটেন্ট ডাঃ মোঃ রাশেদ আলী শাহ। বক্তারা বলেন, জলাতঙ্ক একটি ভয়ংকর মরণব্যধি।

এ রোগে মৃত্যুর হার শতভাগ। পৃথিবীতে কোথাও না কোথায় প্রতি ১০ (দশ) মিনিটে একজন এবং প্রতি বছরে প্রায় ৫৫ হাজার মানুষ জলাতঙ্ক রোগে মারা যায়। জলাতঙ্ক রোগটি কুকুরের কামড় বা আচঁরের মাধ্যমে ছড়ায়।

এছাড়া বিড়াল, শিয়াল, বেজী, বানোরের কামড় বা আচরের মাধ্যমেও এ রোগ হতে পারে। বাংলাদেশ প্রতি বছর প্রায় ২ থেকে ৩ লক্ষ মানুষ কুকুর, বিড়াল, শিয়ালের কামড় বা আঁচরে শিকার হয়ে থাকে।

যাদের মধ্যে বেশির ভাগই শিশু। বর্তমানে কুকুর নিধন বন্ধ থাকার কারণে ভেক্সিন দিয়ে এই জীবানু নষ্ট করার প্রক্রিয়ায় স্বাস্থ্য বিভাগ এই কর্মসূচী চালু করেছে। আগামী ২০২২ সালের মধ্যে এদেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মুল করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য