ডিমলায় জমির ধান কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষনীলফামারীর ডিমলায় ৬ বিঘা জমির পাকাধান কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

সোমবার সকালে উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের উত্তর ঝুনাগাছ চাপানী গ্রামের মৃত আবদুল বাকীর ছেলে নাজমুল হোসেনের ক্রয়কৃত ও পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত ৬ বিঘা আবাদি জমিতে এবারের আমন মৌসুমে আমন ধান চাষাবাদ করা হয়।

ধান পেকে আসলে ওই গ্রামের মমিনুর রহমানের ছেলে আবদুল কাইয়ুম(৪২) ও হালিমুর রহমানের ছেলে রওশন আলী(২২) তাদের লোকজন নিয়ে নাজমুল হোসেনের আবাদি জমির ধান জোর পূর্বক কেটে নেয়ার হুমকী দিয়ে আসছিলো।

এ বিষয়ে নাজমুল হোসেন বাদী হয়ে ডিমলা একটি সাধারন ডায়রী করেন। থানায় ডায়রী করার পর অভিযুক্তরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের পাল্লাভুক্ত লোকজন নিয়ে নাজমুল হোসেনের আবাদি ৬ বিঘা জমির পাকা ধান কেটে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নাজমুল হোসেনের পক্ষ হতে ডিমলা থানায় ছয় জনসহ অজ্ঞাত ১২ জনের নামে একটি মামলা করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উজ্জ্বল শাহ বলেন, ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। দোষিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য