যথাযোগ্য মর্যাদায় ঠাকুরগাঁওয়ে পাক হানাদার মুক্ত দিবস পালনমাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁওয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় ৩ ডিসেম্বর পাক হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন করা হয়েছে। জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড এবং উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির যৌথ আয়োজনে মুক্ত দিবস পালন করা হয়।

এ উপলক্ষে সোমবার সকালে ঠাকুরগাঁও সাধারণ পাঠাগার শহীদ স্মৃতি পাদদেশে বেলুন উড়িয়ে দিবসের উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আকবর আলী ও বীরঙ্গনা আমেনা খাতুন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ,জেলা প্রশাসক ড.কে এম কামরুজ্জামান সেলিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আসাদ মাহফুজুল ইসলাম,ভারপ্রাপ্ত জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বদরুদ্দোজা বদর, উদীচীর জেলা সভাপতি সেতেরা বেগম প্রমূখ।

পরে পাঠাগার চত্বর থেকে একটি মুক্তি শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ঠাকুরগাঁও শহীদ মিনার চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ নেয়।

বিকেলে শহীদ মিনারে মুক্ত নাটক , কবিতা আবৃত্তি ও উদীচী জেলা সংসদেও উদ্যোগে গণঙ্গীত পরিবেশন করা হবে।

উল্লেখ্য,৩ ডিসেম্বর পাক হানাদার মুক্ত হয় ঠাকুরগাঁও। এরপূর্বে ২ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা এবং পাক হানাদারদেও মাঝে সারারাত প্রচন্ড গোলাগুলির পর শত্রুবাহিনী ঠাকুরগাঁও থেকে পিছু হটে সৈয়দপুরে গিয়ে আশ্রয় নেয়। ৩ডিসেম্বর ভোরে মুক্তিযোদ্ধা ও সর্বস্তরের জনগন মিছিল সহ ঠাকুরগাঁও শহরে প্রবেশ করে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে দেয়।জনতা শুরু করে বিজয়ের উল্লাস।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য