সিরিয়ার সেনা অবস্থানে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের ক্ষেপণাস্ত্র হামলাসিরিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় হোমস প্রদেশে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি অবস্থানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন কথিত সন্ত্রাস বিরোধী জোট। সিরিয়ার একটি সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে সেদেশের সরকারি বার্তা সংস্থা সাবা এ খবর জানিয়েছে।

সূত্রটি বলেছে, রোববার রাত ৮টার দিকে হোমস প্রদেশের আশ-শেইখুন শহরের কাছে অবস্থিত আল-গুরাব পাহাড়ে অবস্থিত একটি সেনা অবস্থানে কয়েকটি রকেট নিক্ষেপ করেছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট। হামলায় ঘাঁটিটির বিভিন্ন স্থাপনার ক্ষতি হলেও এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি বলে সূত্রটি জানিয়েছে।

সিরিয়ার কথিত মনিটরিং গ্রুপ ‘সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস’ জানিয়েছে, সিরিয়ার আল-তান্‌ফ অঞ্চলে মোতায়েন মার্কিন সেনারা হোমস প্রদেশে সিরিয়ার সেনা অবস্থান লক্ষ্য করে অন্তত ১৪টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে।

সিরিয়ায় তৎপর উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ বা আইএস দমনের অজুহাতে ২০১৪ সালে আমেরিকার নেতৃত্বে কথিত সন্ত্রাস বিরোধী জোট গঠন করা হয়েছিল। এরপর এই জোট দামেস্ক সরকারের অনুমতি কিংবা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অনুমোদন ছাড়াই সিরিয়ায় সেনা ও যুদ্ধাস্ত্র মোতায়েন করে। কিন্তু এই জোটের সেনারা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার পরিবর্তে প্রায়ই সিরিয়ার সামরিক ও বেসামরিক অবস্থান লক্ষ্য করে হামলা চালায়।

গত সেপ্টেম্বরে একটি মনিটরিং গ্রুপ জানিয়েছে, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত সিরিয়ায় মোতায়েন মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর হামলায় ৩,৩৩১ জন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য