দিনাজপুর সংবাদাতাঃ কারিগরি শিক্ষাই হলো দেশের উন্নয়নের অন্যতম হাতিয়ার উল্লেখ করে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, বিশাল জনসংখ্যার এদেশকে এগিয়ে নিতে হলে সবাইকে প্রযুক্তি দক্ষতা অর্জন করতে হবে। শিক্ষা হওয়া উচিৎ দক্ষতা নির্ভর।   তিনি বলেন, পৃথিবীতে যে জাতি কারিগরি শিক্ষায় যত বেশি উন্নত অর্থনীতিকভাবেই সে জাতি তত বেশী এগিয়ে রয়েছে। তাই বর্তমান সরকার কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নে অধিক গুরুত্ব দিয়েছে।   ২ ডিসেম্বর রোববার এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান, নবীন বরণ, বিদায়ী সংবর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, দেশকে সমৃদ্ধ উজ্জল ভবিষ্যতের দিকে নিয়ে যেতে হলে, জনসংখ্যার বিরাট বোঝাকে অভিশাপ মনে না করে আশির্বাদ হিসেবে গন্য করতে হবে।   এজন্য প্রয়োজনীয় কারিগরি শিক্ষার বিস্তারের কোন বিকল্প নেই। কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষত তরুণ-তরুণীরাই আমাদের অর্থনীতির চেহারাটা আরো বদলে দিতে পারে। দেশে তো বটেই, আন্তর্জাতি শ্রম বাজারে উপযুক্ত এবং ভালো বেতনে চাকরীর সুযোগ পেতে পারে তারা অনায়াসেই।   এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মোঃ  মোসলেম উদ্দিন, উপাধ্যাক্ষ মোঃ ওয়াদুদ মন্ডল, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের উপ-পরিচালক (প্রকাশনা) মোঃ মোদাচ্ছের আলী, দিনাজপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ সোলায়মান আলী, দিনাজপুর কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মোঃ মাসুদ রানা, আইডিইবি দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ মতিউর রহমান, ৪নং শেখপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মমিনুল ইসলাম ও এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি’র পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ রশিদুর ইসলাম।   স্বাগত বক্তব্য রাখেন এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর নির্বাহী পরিচালক ও অধ্যক্ষ মোঃ আকরাম আলী মিয়া। অভিভাবকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পৌরসভার কাউন্সিলর মোঃ আশরাফুল আলম রমজান, কৃতি শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিদ্যালয়ের ছাত্র শাহীন আহম্মেদ নয়ন, বিদায়ী শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মোঃ রোকনুজ্জামান রোকন এবং নবীন শিক্ষার্থীদের পক্ষে মোঃ জাহিদ হাসান।   অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শিক্ষক টুটুল চন্দ্র রায় ও শিল্পী আক্তার শিউলী। অনুষ্ঠানের শুরুতেই নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয় ও বিদায়ী শিক্ষার্থীদের ফুল ও সম্মাননা ক্রেস্ট দিয়ে বিদায়ী সংবর্ধনা জানানো হয় এবং শেষে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান করেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। দিনাজপুর সংবাদাতাঃ কারিগরি শিক্ষাই হলো দেশের উন্নয়নের অন্যতম হাতিয়ার উল্লেখ করে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, বিশাল জনসংখ্যার এদেশকে এগিয়ে নিতে হলে সবাইকে প্রযুক্তি দক্ষতা অর্জন করতে হবে। শিক্ষা হওয়া উচিৎ দক্ষতা নির্ভর।

তিনি বলেন, পৃথিবীতে যে জাতি কারিগরি শিক্ষায় যত বেশি উন্নত অর্থনীতিকভাবেই সে জাতি তত বেশী এগিয়ে রয়েছে। তাই বর্তমান সরকার কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নে অধিক গুরুত্ব দিয়েছে।

২ ডিসেম্বর রোববার এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান, নবীন বরণ, বিদায়ী সংবর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, দেশকে সমৃদ্ধ উজ্জল ভবিষ্যতের দিকে নিয়ে যেতে হলে, জনসংখ্যার বিরাট বোঝাকে অভিশাপ মনে না করে আশির্বাদ হিসেবে গন্য করতে হবে।

এজন্য প্রয়োজনীয় কারিগরি শিক্ষার বিস্তারের কোন বিকল্প নেই। কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষত তরুণ-তরুণীরাই আমাদের অর্থনীতির চেহারাটা আরো বদলে দিতে পারে। দেশে তো বটেই, আন্তর্জাতি শ্রম বাজারে উপযুক্ত এবং ভালো বেতনে চাকরীর সুযোগ পেতে পারে তারা অনায়াসেই।

এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মোঃ মোসলেম উদ্দিন, উপাধ্যাক্ষ মোঃ ওয়াদুদ মন্ডল, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের উপ-পরিচালক (প্রকাশনা) মোঃ মোদাচ্ছের আলী, দিনাজপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ সোলায়মান আলী, দিনাজপুর কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মোঃ মাসুদ রানা, আইডিইবি দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ মতিউর রহমান, ৪নং শেখপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মমিনুল ইসলাম ও এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি’র পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ রশিদুর ইসলাম।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন এস আর এ ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর নির্বাহী পরিচালক ও অধ্যক্ষ মোঃ আকরাম আলী মিয়া। অভিভাবকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পৌরসভার কাউন্সিলর মোঃ আশরাফুল আলম রমজান, কৃতি শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিদ্যালয়ের ছাত্র শাহীন আহম্মেদ নয়ন, বিদায়ী শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মোঃ রোকনুজ্জামান রোকন এবং নবীন শিক্ষার্থীদের পক্ষে মোঃ জাহিদ হাসান।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শিক্ষক টুটুল চন্দ্র রায় ও শিল্পী আক্তার শিউলী। অনুষ্ঠানের শুরুতেই নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয় ও বিদায়ী শিক্ষার্থীদের ফুল ও সম্মাননা ক্রেস্ট দিয়ে বিদায়ী সংবর্ধনা জানানো হয় এবং শেষে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান করেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য