বিরলে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিতবিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ উত্তরাঞ্চলে এই প্রথম সুনামধন্য চিকিৎসকদের মিলনমেলায় হাজার হাজার মানুষকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যে চিকিৎসাপত্রসহ ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে।

বিরল উপজেলার রাজারামপুর ইউপি’র মেধাকান্দর (ডিসি’র বাজার) ১০ শয্যা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ঐতিহ্যবাহী কল্যাণ, উন্নয়ন ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠান শামসুদ্দিন-গোলেজান ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর আয়োজনে এবং বিএমএ দিনাজপুর শাখা’র সহযোগিতায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারী অধ্যাপকসহ একঝাঁক সুনামধন্য চিকিৎসক দিনব্যাপী এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে সেবা প্রদান করেন।

মেডিকেল ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন মরহুম শামসুদ্দিন আহমেদ ও গোলেজান বেগম এর কৃতিসন্তান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (জননিরাপত্তা বিভাগ) মোঃ নুরুল ইসলাম ও তাঁর সহধর্মিনী মিসেস ফিরোজা ইসলাম।

উল্লেখ্য, মরহুম শামসুদ্দিন আহমেদ এর ২৬ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প এর আয়োজন করা হয়েছে দিনটিকে ঘিরে।

সেবাপ্রদানকারী চিকিৎসকরা হলেন- সার্জারী বিভাগেরঃ- ডাঃ আবদুস সালাম, ডাঃ সারোয়ার মুর্শেদ আলম, ডাঃ নুর আলম, ডাঃ রনজু, ডাঃ রবিউল, মেডিসিন (শিশু) বিভাগেরঃ- ডাঃ ওয়ারেস, ডাঃ ওয়াহেদ, ডাঃ শেখ ফরিদ, ডাঃ আবুজার রহমান, মেডিসিন বিভাগেরঃ- ডাঃ আইনুল ইসলাম, ডাঃ ওয়াহেদ, ডাঃ আশিক ইকবাল, ডাঃ নুরুজ্জামান, কার্ডিওলজি বিভাগের ডাঃ ইফতেখার মোল্লা, চর্ম ও যৌন বিভাগের ডাঃ ইসমাইল হোসেন, গাইনী বিভাগেরঃ- ডাঃ আইরিন পারভীন, ডাঃ মেহেরুন নাহার মিনু, ডাঃ শাহানাজ বেগম, ডাঃ সানজিদা, চক্ষু বিভাগেরঃ- ডাঃ আশরাফুল, ডাঃ অঞ্জনা রায়, নাক, কান ও গলা বিভাগেরঃ- ডাঃ আজগার আলী, ডাঃ মাহাবুব চৌধুরী, অর্থোপেডিকস বিভাগের ডাঃ আমিনুল ইসলাম, নিউরো মেডিসিন বিভাগের ডাঃ এ এস এম বদরুল হাসান, বক্ষব্যাধি বিভাগের ডাঃ বি কে বোস।

শামসুদ্দিন-গোলেজান ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর সভাপতি আব্দুস সামাদ, সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশীদ বাবুল, অন্যতম সদস্য ও বিরল উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বিরল উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নে এক সপ্তাহ আগে থেকে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প এর স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ে প্রচারণা চালানো হয়েছে। অতিদরীদ্রসহ সর্বস্তরের প্রায় ৫ হাজার মানুষ দিনব্যাপী এই চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করেছেন।

সেবা গ্রহিতা ফাতেমা, বিথি, নুর আকতার বানু, কালাম, আনছারুল, আব্দুর রাজ্জাকসহ অনেকে জানান, চিকিৎসাপত্রসহ ওষুধ বিনামূল্যে বিতরণ হওয়ায় আর্থিকভাবে সহায়তার জন্য তাঁদের কারো নিকট আর হাত পাততে হলো না। এটা নিঃসন্দেহে একটি ভালো ও সেবামূলক উদ্যোগ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য