সুযোগ পেয়েও ঢাকা ডেন্টাল কলেজে ভর্তি অনিশ্চিত জাহেদেরআজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ খেয়ে না-খেয়ে পড়াশোনা চালিয়ে এসেছেন আবু জাহেদ। এবার ডেন্টাল কলেজে পড়ার সুযোগও পেয়েছেন। কিন্তু টাকার অভাবে ডেন্টাল কলেজে ভর্তি হতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সংশয়ে আছেন।

আবু জাহেদ লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর গ্রামের মৃত দুলাল মিয়ার ছেলে।

জাহেদ ও স্থানীয়রা জানান, দিনমজুর পরিবারের সন্তান আবু জাহেদ গত ৪ বছর আগে বাবাকে হারিয়ে দিশেহারা হয় পড়ে। বাবার রেখে যাওয়া ১০ শতাংশ জমির ফসল ও ২টি গরু পালন করে মা মালেকা বেগমকে নিয়ে ছাত্রাবস্থায় সংসারের হাল ধরতে হয় তাকে। জীবনকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্নে লেখাপড়াও চালিয়ে যায় যথারীতি।

অর্থের অভাবে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পুরন বন্ধ হওয়ার উপক্রম হলে আত্নীয়দের সহায়তায় তা সম্পন্ন করে। স্থানীয় হরিদাস উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ ৫ নিয়ে পাশ করে সে। এরপর ইসলামী ব্যাংকের দুই বছরের শিক্ষা বৃত্তি ও টিউশনি করা টাকায় লালমনিরহাট ক্যান্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি হয়। সেখান থেকে জিপিএ ৪.৯২ পয়েন্ট নিয়ে এইচএসসি পাশ করে চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন দেখে আবু জাহেদ।

চিকিৎসক হতে অনেক অর্থের প্রয়োজন শুনে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি ইউনিটের ভর্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ১৪৭১ তম স্থান পায় সে। কিন্তু সুযোগ হলেও অর্থের অভাবে ভর্তি হওয়া সম্ভব হয়নি তার। অবশেষে বাংলাদেশ ডেন্টাল কলেজের ভর্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ৬৩ তম স্থান অধিকার করে ঢাকা ডেন্টাল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করে সে। ঢাকা ডেন্টালে ভর্তি হতে তার প্রয়োজন প্রায় ২৫-৩০ হাজার টাকা। আগামী ২৪ নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি হতে না পারলে এ স্বপ্নও ভেঙ্গে যাবে তার। তাই এ স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্য কামনা করেছে আবু জাহেদ।

আবু জাহেদ বলেন,‘খেয়ে না খেয়ে অনেক কষ্টে লেখাপড়া করেছি। মায়ের আয়ে সংসার চলে না। চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্নে এবছর ডেন্টাল কলেজে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছি। মা চান, আমি যেন চিকিৎসক হই। কিন্তু চান্স পেয়েও আমার ভর্তি অনিশ্চিত।’

আবু জাহেদের মা মালেকা বেগম বলেন, হামার মত গরিবের ছাওয়া(সন্তান) ডাক্তার হবার এত্ত টাকা কোনটে পামো বাহে। কায় দিবে এত্ত টাকা।

হরিদাস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওসমান গণি জানান, আবু জাহেদ যেমন জেদি তেমন মেধাবী। তাকে সহযোগিতা করলে সে তার স্বপ্ন পুরন করেই ছাড়বে। তাকে সাহায্য করতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য