মোঃ আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাও) থেকেঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এলাকায় নির্বাচনী উত্তাপ চলছে পুরোদমে। ঠাকুরগাও-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মনোনয়ন লড়াইয়ে বইছে চরম উত্তাপ। পীরগঞ্জ উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা সাথে রাণীশংকৈল উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত ঠাকুরগাও-৩ আসন। আসনটিতে মোট ভোটার সংখ্যা তিন লক্ষ পয়ত্রিশ হাজার তিনশত পনের জন।

আ’লীগ ও বিএনপি’র প্রার্থীরা মরিয়া হয়ে উঠেছেন নিজ দলের মার্কার ভোটে অংশগ্রহণের জন্য। বিশেষ করে আ’লীগ নেতারা বিগত দুইটি সংসদে নিজ দলের মার্কার প্রার্থী জোট-মহাজোটগত কারণে না থাকায় কখনো লাঙ্গল কখনো হাতুড়ী মার্কায় ভোট দিতে হয়েছে। তবে এবার তারা নারাজ অন্য মার্কায় ভোট দিতে।

ফলে যে কোন মূল্যে এ আসনে তারা নৌকার প্রার্থী চাই নতুবা মার্কাটা হতে হবে নৌকা। এই আসনে নিজেদের ভোট দিয়ে অন্য দলের প্রার্থীদের বিজয়ী করে অবমুল্যয়ন হতে আর চান না আ’লীগের ভোটাররা। জানা যায়, ঠাকুরগাও-৩ আসনে সব দল ও স্বতন্তুু মিলে মোট প্রার্থী এ যাবৎ ২১ জনে দাড়িয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী আ’লীগ ও বিএনপিতে।

আ’লীগ থেকে যারা মনোনয়ন উঠিয়েছেন
পীরগঞ্জ উপজেলার সভাপতি ও জেলা আ’লীগের জোষ্ঠ সহ-সভাপতি সাবেক সাংসদ ইমদাদুল হক, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আক্তারুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় আ’লীগের ত্রাণ উপ-কমিটির সদস্য ডাঃ আনোয়ার চৌধুরী, রাণীশংকৈল উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অধ্যাপক সইদুল হক, সরংক্ষিত ৩০১ আসনের সাংসদ ও জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও রাণীশংকৈল উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি সেলিনা জাহান লিটা, বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক সুজাউল করিম, তাতীলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি।

বিএনপি থেকে যারা মনোনয়ন উঠিয়েছেন
পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি জাহিদুর রহমান জাহিদ, সহ-সভাপতি জামান চৌধুরী, ঠাকুরগাও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ওবায়দুল্লাহ মাসুদ, ঢাকা উত্তর মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি কামাল আনোয়ার আহম্মেদ, রাণীশংকৈল উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মরহুম মঈনুুদ্দিন বিশ্বাসের মেয়ে মনিরা বিশ্বাস মনি এবং বিএনপি নেতা পীরঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা সুুকুমার রায়।
জাপা ওয়ার্কাসসহ অন্যান্যরা

পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক সাংসদ হাফিজ উদ্দীন আহম্মেদ, ঠাকুরগাও জেলা ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি ও বর্তমান ঠাকুরগাও-৩ আসনের সাংসদ ইয়াসিন আলী, জাসদ (ইনু) আব্দুল বারেক সিপিবি প্রভাত সমির, ইসলামী আন্দোলনের নাজিম উদ্দীন ও স্বতন্ত প্রার্থী হিসেবে পীরগঞ্জ উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র এবং জাকিরুল্লাহ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন তুলেছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশী সংরক্ষিত ৩০১ আসনের সাংসদ সেলিনা জাহান লিটা জানান, ঠাকুরগাও-৩ আসনে মনোনয়ন যাকেই দেওয়া হোক তবে সেটা হতে হবে নৌকার প্রার্র্থী বলে নেত্রীর কাছে দাবী জানিয়েছি আমরা স্থানীয় আ’লীগ। এছাড়াও আমি নিজেই নৌকা প্রতিকের একজন প্রার্থী। দল যদি আমাকে নির্বাচনে অংশ গ্রহণের সুযোগ দেয় তাহলে শতভাগ জয়ী হবার আশা রাখি।

বিএনপি নেত্রী মনিরা বিশ্বাস বলেন, আমার বাবা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এছাড়াও বিএনপির দূঃসময়ে সব সময় পাশে থাকি। তৃৃণমুুল পর্যায়ে নারীদের বিএনপির পতাকালে আনার জন্য এখনও কাজ করে চলেছি। তাই আমিও মনোনয়ন প্রত্যাশী।

পীরগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাবেক সাংসদ ইমদাদুল বলেন, এ আসনে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবো।

পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি জাহিদুর রহমান জাহিদ বলেন, মানুষ আ’লীগ কে প্রত্যাখান করার জন্য প্রস্তুত হয়ে রয়েছে । তাই আমি মনোনয়ন পেলে এবং সাধারণ মানুষ ভোট দেওয়ার সুযোগ পেলে আমাকে তারা বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

ঠাকুরগাও-৩ আসনের বর্তমান সাংসদ ও ১৪ দলীয় জোটের মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি অধ্যাপক ইয়াসিন আলী বলেন, আমি এমপি হবার পর এলাকার রাস্তা ঘাটসহ অনেক উন্নয়ন করেছি। আমি আবার মনোনয়ন পেলে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারবো।

স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র রায় বলেন, আমি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছি জাতি ধর্ম দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষের দাবির জায়গা থেকে। সাধারন মানুষ চায়

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য