রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিঝুম (৫) নামে শিশু শ্রেণির এক ছাত্রী নিহত হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১০টায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত নিঝুম উপজেলার ঘনিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী এবং ঘনিরামপুর গুচ্ছ গ্রামের নুুরুল হকের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘনিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি দিলে রাস্তা পারাপারের সময় রংপুর থেকে ছেড়ে আসা একটি প্রাইভেট কার ছাত্রীটিকে ধাক্কা দেয়। পরে এলাকার লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

সহপাঠীর মৃত্যুর খবর স্কুলে পৌঁছুলে সকল ছাত্র-ছাত্রী মহাসড়কে নেমে পড়ে। এ সময় তারা মহাসড়ক ২ ঘন্টা অবরোধ করে সকল যান চলাচলা বন্ধ করে দেয়।

পরে ঘটনাস্থলে তারাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আমিনুল ইসলাম, তারাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান লিটন, তারাগঞ্জ থানার ওসি জিন্নাত আলী, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান এসে অবরোধে থাকা সকল ছাত্র-ছাত্রীকে বিদ্যালয়ে ফিরে যেতে বলেন।

এ সময় সকল শিক্ষার্থীরা স্কুলের সামনে ওভারব্রিজ নির্মানের দাবি জানান। পরে উপজেলা পরিষদের চেয়্যারম্যান আনিছুর রহমান লিটন স্কুলের সামনের রাস্তায় রোড ডিভাইডার ও গতি নিয়ন্ত্রক দেওয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা স্কুলে ফিরে যায়।

এ বিষয়ে উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা আঞ্জুমান আরা লায়লা বলেন, আমরা প্রতিদিন স্কুল ছুটির পর শিক্ষার্থীদের রাস্তা পার করে দিই। কিন্তু হঠাৎ নিঝুম রাস্তা পার হওয়ার সময় এই দুর্ঘটনাটির কবলে পড়ে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য