হাবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ কিছুদিন থেকে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে মাইকের ব্যবহার ব্যাপকহারে বেড়ে গেছে। সাধারন শিক্ষার্থীরা বিশেষ করে ড.এম. ওয়াজেদ ভবন ও ভেটেরিনারি অনুষদের শিক্ষার্থীরা বরাবরই এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে আসছে।

অবশেষে সাধারন শিক্ষার্থীদের পক্ষে শব্দ দূষণ ও যত্রতত্র মাইকের ব্যবহারের বিরুদ্ধে আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছে গণস্বাক্ষর সহ লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ , হাবিপ্রবি শাখা। ছাত্রলীগের পক্ষে লিখিত অভিযোগে স্বাক্ষর করেন ছাত্রলীগ নেতা তারেক চৌধুরী , পলাশ রায়, রবিউল ইসলাম, স্বপন কুমার, রিয়াদ খান ও সারোয়ার জাহান।

এরপর বিষয়টি নিয়ে ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.মু.আবুল কাসেমের সাথেও দেখা করেন। এ সময় তারা শব্দ দূষণের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান। তারা বলেন অনেকেরই ক্লাস পরীক্ষা বিঘ্নিত হয় এর কারণে।

পাশাপাশি কিছু কিছু অনুষদের কয়েকজন শিক্ষক –কর্মকর্তা- কর্মচারী ক্লাস পরীক্ষা বন্ধ করে অফিস টাইমে নিজের স্বার্থে আন্দোলন করছে বলেও অভিযোগ করেন তারা। তারা বলেন এর ফলে শিক্ষার্থীরা সেশন জটের সম্মুখীন হচ্ছে যা এই সরকারের নীতি বিরোধী। তারা আরও বলেন নির্বাচন সামনে রেখে এসব অপতৎপরতা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করছে। তাই প্রশাসনের কাছে এসব বিষয়েও দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ডা.মো.খালেদ হোসেন জানান, অভিযোগ পাওয়ার পরে এ বিষয়ে কাজ শুরু করেছি আমরা। তিনি বলেন প্রক্টর সেকশনের অনুমতি ছাড়া এভাবে মাইক ব্যবহার করা যাবেনা ইতোমধ্যে এই মর্মে নোটিশ ও জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের অন্যান্য মৌখিক অভিযোগ গুলো নিয়েও কাজ করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য