Exam PSC3দিনাজপুর সংবাদাতাঃ আগামী ১৮ নভেম্বর রোববার থেকে শুরু হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় পাবলিক পরীক্ষা ২০১৮ সালের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। দিনাজপুর জেলায় এবার এই পরীক্ষায় ৬৫ হাজার ৭৫৯ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করবে। গত বছরের চেয়ে এবারে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ৩ হাজার ১০৭ জন বেড়েছে। গত বছর ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ছিল ৬২ হাজার ৬৫২ জন।

দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় জেলার ১৩ উপজেলা হতে মোট ৬৫ হাজার ৭৫৯ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় (পিইসি) পরীক্ষার্থী ৬০ হাজার ২৫৫ জন।

অপরদিকে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় (এইসি) ৫ হাজার ৫০৪ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। এর মধ্যে ছাত্র ২ হাজার ৯৬২ জন এবং ছাত্রী ২ হাজার ১২৮ জন। ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রী ৮৩৪ জন কম। জেলার ১৩ উপজেলায় ১৪২টি কেন্দ্রের মাধ্যমে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস আরো জানায়, গত বছরের চেয়ে এবারে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ৩ হাজার ১০৭ জন বেড়েছে। গত বছর জেলায় ছাত্রছাত্রী ছিল ৬২ হাজার ৬৫২ জন। আর এবারে ৬৫ হাজার ৭৫৯ জন।

উপজেলাভিত্তিক পরীক্ষার্থীর সংখ্যার মধ্যে রয়েছে-কাহারোল উপজেলায় ৬টি কেন্দ্রে ৩১৬৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ২৯৬৫ জন আর ইবতেদায়ীতে ২০০ জন, খানসামায় ৬টি কেন্দ্রে ৪০৩৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৩৭১৪ আর ইবতেদায়ীতে ৩২০ জন, ঘোড়াঘাটে ৫টি কেন্দ্রে ৩৬৪৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৩৩০৭ আর ইবতেদায়ীতে ৩৩৬ জন, চিরিরবন্দরের ১৪টি কেন্দ্রে ৬৬৮০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৬১৭৪ আর ইবতেদায়ীতে ৫০৬ জন, সদর উপজেলার ১৫টি কেন্দ্রে ৯১৩৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৮৪৭৯ আর ইবতেদায়ীতে ৬৫৭ জন, নবাবগঞ্জে ১০টি কেন্দ্রে ৫২৫৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৪৪৮৮ আর ইবতেদায়ীতে ৭৬৮ জন, পার্বতীপুরে ২৩টি কেন্দ্রে ৮৪৮৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৭৭১৩ আর ইবতেদায়ীতে ৭৭০ জন, ফুলবাড়ীতে ১২টি কেন্দ্রে ৩৬৭৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৩৪৩০ আর ইবতেদায়ীতে ২৪৯ জন, বিরলে ১৩টি কেন্দ্রে ৫৯৭২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৫৬৩৬ আর ইবতেদায়ীতে ৩৩৬ জন, বিরামপুরে ১০টি কেন্দ্রে ৩৫১৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৩১০৫ আর ইবতেদায়ীতে ৪০৯ জন, বীরগঞ্জে ১৪টি কেন্দ্রে ৬৯২৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৬৪০০ আর ইবতেদায়ীতে ৫২৬ জন, বোচাগঞ্জে ৭টি কেন্দ্রে ৩৪৭১ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ৩৩০৩ আর ইবতেদায়ীতে ১৬৮ জন এবং হাকিমপুর উপজেলায় ৪টি কেন্দ্রে ১৮০০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রাথমিকে ১৫৪১ আর ইবতেদায়ীতে ২৫৯ জন।

এদিকে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এসএম তৌফিকুজ্জামান জানিয়েছেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষে ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ১৮ নভেম্বর রোববার পরীক্ষা শুরু হবে এবং ২৬ নভেম্বর সোমবার পরীক্ষা শেষ হবে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য